Xiaomi Mi 10 vs OnePlus 8 : কে কার থেকে কোথায় এগিয়ে জেনে নিন, কোনটি কিনবেন আপনি

Mi 10 5G Vs OnePlus 8

চীনা স্মার্টফোন কোম্পানি Xiaomi গতকাল ভারতে Mi 10 5G লঞ্চ করেছে। এই ফোনের প্রধান আকর্ষণ ১০৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি রিয়ার ক্যামেরা ও স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসর। ভারতে এই ফোনের দাম শুরু হয়েছে ৪৯,৯৯৯ টাকা থেকে। এদিকে ওয়ানপ্লাস ও কিছুদিন আগে ভারতে তাদের OnePlus 8 সিরিজ লঞ্চ করেছিল। এই সিরিজের ও প্রধান আকর্ষণ স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসর। আজ আমরা এই পোস্টে Mi 10 5G ও OnePlus 8 এর মধ্যে পার্থক্য দেখবো এবং বিচার করবো কোন ফোনটি আমাদের জন্য ভালো।

Mi 10 5G Vs OnePlus 8 : দাম

ভারতে মি ১০ ৫জি দুটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের সাথে লঞ্চ হয়েছে। যার ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম ৪৯,৯৯৯ টাকা। আবার ৮ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজের দাম ৫৪,৯৯৯ টাকা।

ভারতে ওয়ানপ্লাস ৮ এর দাম শুরু হয়েছে ৪১,৯৯৯ টাকা থেকে। এই দাম ফোনটির ৬ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের। আবার ৮ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম পড়বে ৪৪,৯৯৯ টাকা। এদিকে ১২ জিবি র‌্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট কেনা যাবে ৪৯,৯৯৯ টাকায়। 

Mi 10 5G Vs OnePlus 8 : ডিসপ্লে ও ডিজাইন

শাওমি মি ১০ ৫জি ফোনটি 3D কার্ভাড ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস অ্যামোলেড ট্রুকালার ডিসপ্লের সাথে এসেছে। এই ডিসপ্লের রেজুলেশন ১০৮০ x ২৩৪০ পিক্সেল এবং রিফ্রেশ রেট ৯০ হার্জ। এই ডিসপ্লে এইচডিআর১০ সাপোর্ট করবে এবং এর আসপেক্ট রেশিও ১৯.৫:৯। এছাড়াও এই ডিসপ্লে প্যানেলর টাচ স্যাম্পলিং রেট ১৮০হার্জ। এই ডিসপ্লের ডিজাইন মাইক্রোডট নচ। 

ওয়ানপ্লাস ৮ ফোনটি ৬.৫৫ ইঞ্চি ফ্লুইড AMOLED ডিসপ্লে সহ এসেছে। এর আসপেক্ট রেশিও ২০:৯ এবং এতে এইচডিআর ১০ প্লাস ও থ্রিডি কর্নিং গরিলা গ্লাস সাপোর্ট দেওয়া হয়েছে। এই ডিসপ্লের রিফ্রেশ রেট ৯০ হার্জ এবং এতে sRGB সাপোর্ট করবে। এই ডিসপ্লের ডিজাইন পাঞ্চ হোল।

Mi 10 5G Vs OnePlus 8 : প্রসেসর

শাওমি মি ১০ ৫জি ফোনে 5G সাপোর্টের সাথে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসর আছে। এছাড়াও পাবেন এড্রেন ৬৫০ জিপিইউ। ফোনকে ঠান্ডা রাখতে লিকুইড কুল ২.০ প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে।

ওয়ানপ্লাস ৮ ফোনে 5G সাপোর্টের সাথে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। সাথে দেওয়া হয়েছে এড্রেন ৬৫০ জিপিইউ।

Mi 10 5G Vs OnePlus 8 : ক্যামেরা

মি ১০ এর সেরা ফিচারের মধ্যে আরও একটি হল এর ক্যামেরা ফিচার। ফোনটির পিছনে ৪ টি ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। যার প্রধান ক্যামেরা ১০৮ মেগাপিক্সেল। এতে ISOCELL ব্রাইট এইচএমএক্স সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে। এর অন্যান্য ক্যামেরাগুলি হল ১৩ মেগাপিক্সেল ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স, যার ফিল্ড অফ ভিউ ১২৩ ডিগ্রী এবং ২ টি ২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এই ফোনের ক্যামেরা ৮কে ভিডিও রেকর্ডিং সাপোর্ট করে। এছাড়াও এতে OIS এবং EIS প্রযুক্তি ব্যবহার হয়েছে। সেলফি ও ভিডিওর জন্য এই ফোনে ২০ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা উপলব্ধ।

ওয়ানপ্লাস ৮ ফোনের পিছনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা উপলব্ধ। যার প্রধান ক্যামেরা ৪৮ মেগাপিক্সেল সনি আইএমএক্স ৫৮৬ সেন্সর। যার অ্যাপারচার এফ / ১.৭৫ এবং ০.৮ মিমি পিক্সেল সাইজ। এই সেন্সর অপটিকাল ইমেজ স্টেবিলাইজেশ (OIS) এবং ইলেকট্রনিক ইমেজ স্টেবিলাইজেশন (EIS) উভয় সাপোর্ট করে। পিছনের দ্বিতীয় ক্যামেরাটি ১৬ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স, যার অ্যাপারচার এফ / ২.২ এবং ১১৬ ডিগ্রী ফিল্ড অফ ভিউ। আবার তৃতীয় ক্যামেরাটি ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা। এর অ্যাপারচার এফ/২.৪। এই সেটআপ পিডিএএফ এবং কনট্রাস্ট- বেসড অটোফোকাসকে সমর্থিত। এরসাথে ডুয়েল এলইডি ফ্ল্যাশ দেওয়া হয়েছে। আবার ফোনের সামনে এফ/২.৪৫ অ্যাপারচার, EIS সহ ১৬ মেগাপিক্সেল সনি আইএমএক্স ৪৭১ সেন্সর আছে।

Mi 10 5G Vs OnePlus 8 : ব্যাটারি

পাওয়ারের কথা বললে Xiaomi Mi 10 5G তে পাবেন ৪,৭৮০ এমএএইচ ব্যাটারি। যেখানে ৩০ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিংয়ের পাশাপাশি ৩০ ওয়াট ওয়্যার্ড টার্বো চার্জিং সাপোর্ট করে। এছাড়াও ১০ ওয়াট রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং ও এতে সাপোর্ট করবে। 

ওয়ানপ্লাস ৮ ফোনে রয়েছে ৪,৩০০ এমএএইচ ব্যাটারি। এতে Warp charge 30T ( ৩০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং) সাপোর্ট করবে।

মন্তব্য :

তাহলে আমরা দেখলাম দামের দিক থেকে ওয়ানপ্লাস ৮, শাওমি মি ১০ ৫জি থেকে সস্তা। আবার এই দুই ফোনে একই প্রসেসর পাওয়া যাবে। যদিও ডিসপ্লে, ক্যামেরা ও ব্যাটারির দিক থেকে বিচার করলে শাওমি মি ১০ এগিয়ে। তাই আপনার যদি কিছুটা কম দামে বেশি স্টোরেজ প্রয়োজন হয়, তাহলে ওয়ানপ্লাস ৮ সেরা বিকল্প। অন্যথায় শাওমি মি ১০ ৫জি কিনতে পারেন।