ইন্টারনেটে ফাঁস Mi 11 Pro এর নতুন মডেলের ফিচার, থাকবে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর

xiaomi-mi-11-pro-european-version-specifications-leaked-codename-star.jpg

কয়েকদিন আগেই Xiaomi গ্লোবাল মার্কেটে Mi 11 ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনটি লঞ্চ করেছে। তবে তার আগে গত ডিসেম্বরের শেষলগ্নে চীনে লঞ্চ হওয়ার ২১ দিনের মধ্যেই হু হু করে ফোনটির ১০ লক্ষ ইউনিট বিক্রি হয়ে গিয়েছিল। ফলে ফোনটি নিয়ে মানুষের মধ্যে আগ্রহ এবং জনপ্রিয়তা যে তুঙ্গে, তা সহজেই বোধগম্য। শাওমি জানিয়েছে, বিশাল বিক্রি সত্বেও ফোনটির চাহিদায় কিন্তু বিন্দুমাত্র ভাটা পড়েনি; বরং তা দিনদিন বাড়ছে। এদিকে Mi 11-এর পর এই সিরিজের হাই-ইন্ড ভ্যারিয়েন্ট Mi 11 Pro ও Mi 11 Ultra নিয়ে প্রত্যাশার পারদও ক্রমশ চড়ছে। সম্প্রতি একটি ভিডিওতে  Mi 11 Ultra-র ক্যামেরা সেটআপের একঝলক আমরা দেখেছিলাম। ক্যামেরা ডিপার্টমেন্টে ফোনটি যে প্রতিদ্বন্দ্বীদের গুণে গুণে গোল দেবে, তা নিঃসন্দেহে বলা যায়৷ তবে আজ Mi 11 সিরিজের আরও একটি মডেলের ব্যাপারে তথ্য সামনে এল।

জনপ্রিয় লিকস্টার ম্যাক্স ওয়েনবাচের মতে, শাওমির আপকামিং এই ডিভাইসটির কোডনেম হল “Star” (স্টার)। এটি বেস মডেল এমআই ১১-র থেকে আলাদা, কারণ এমআই ১১-র কোডনেম ছিল “Venus” (ভেনাস)। Star কোডনেমের মডেলটির ভার্সন হল EAA, যার অর্থ এটি ইউরোপে লঞ্চ হবে। এছাড়া, ফোনটি চলবে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসরে৷ সেক্ষেত্রে মনে করা হচ্ছে Star কোডনেমের ফোনটি Mi 11 Pro এর একটি ইউরিপিয়ান ভার্সন থাকবে, যা চীন বা অন্য অঞ্চলে লঞ্চ হওয়া মি ১১ প্রো থেকে কিছুটা আলাদা স্পেসিফিকেশন সহ আসবে।

Xiaomi Mi 11 Pro-র সম্ভাব্য স্পেসিফিকেশন

এমআই ১১ প্রো ৬.৮১ ইঞ্চি 2K কোয়াড কোর্ভড ডিসপ্লে সহ আসতে পারে বলে জল্পনা চলছে। ডিসপ্লের রেজোলিউশন হবে ৩২০০x১৪৪০ পিক্সেল এবং পিক্সেল ডেনসিটি থাকবে ৫১৫ পিপিআই পর্যন্ত। পাশাপাশি, এটি ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ৪৮০ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট, এবং DCI-P3 কালার গ্যামুট সাপোর্ট করবে। ফোনটি চলবে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসরে৷ এছাড়া, ফোনে LPDDR5 র‌্যাম এবং UFS 3.1 স্টোরেজ প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে। ফটোগ্রাফির জন্য ফোনে থাকবে ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর। ক্যামেরা সেটআপটি ডিজিটাল জুম পেরিস্কোপ টেলিফটো লেন্স সহ আসতে পারে যা ১২০x জুম সাপোর্ট করবে। সেইসঙ্গে এতে থাকব আরও দুটি ক্যামেরা সেন্সর।

এদিকে জনপ্রিয় টিপ্সটার ডিজিটাল চ্যাট স্টেশন জানিয়েছেন, Mi 11-র তুলনায় Mi 11 Pro-তে আরও বেশী ক্যাপাসিটির ব্যাটারি থাকবে। তার দাবি, Xiaomi এতে ৫০০০ এমএএইচ ডুয়াল সেল ব্যাটারি দেবে। যা ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং এবং ৫৫ ওয়াট ওয়্যারলেস ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। অবগতির জন্য বলে রাখা, এই ১২০ ওয়াট সলিউশন ৪৫০০ এমএএইচ ব্যাটারিকে মাত্র ৩০ মিনিটে ফুল চার্জ করে দেয়। তবে আজ, ডিজিটাল চ্যাট স্টেশন ওয়েইবো পোস্টে লিখেছেন, এই মুহুর্তে, হাই-ক্যাপাসিটির ব্যাটারি ফাস্ট-চার্জ করা শক্ত কাজ, এবং চার্জিংয়ের গতিও প্রত্যাশানুরূপ নয়। তাই ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সলিউশনটি এই ফোনে না থাকতেও পারে। সেক্ষেত্রে এটি ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং ফিচারের সাথে আসলেও আসতে পারে বলে তিনি মনে করছেন।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন