ইয়েজদি-র নতুন বাইক কেনার জন্য দূরে কোথাও যেতে হবে না, পেয়ে যাবেন জাওয়া-র ডিলারশিপে

yezdi-motorcycles-to-be-sold-alongside-jawa-bikes-in-common-dealerships

গতকালই দীর্ঘ ২৬ বছর পর নবরূপে প্রত্যাবর্তন করেছে একসময়কার বাইক প্রেমীদের নস্টালজিয়া টু-হুইলার প্রস্তুতকারী ব্র্যান্ড Yezdi। ভারতের বাজারে Yezdi Adventure, Yezdi Scrambler ও Yezdi Roadster– বাইকগুলি লঞ্চ হয়েছে। মজার বিষয় হল, স্টাইল ও ব্যবহারিক দিক থেকে মডেলগুলি বাইকের যে শ্রেণীতে পড়ছে সেই হিসেবেই এদের নামকরণ হয়েছে। আমরা জানি, Mahindra-র সহকারী সংস্থা Classic Legends-এর হাত ধরে নবজন্ম পেয়েছে দুই ভ্রাতৃ সংস্থা Yezdi ও Jawa। গত বছর নভেম্বরে সংস্থা দুটি স্বতন্ত্রভাবে পথ চলার কথা ঘোষণা করে। কিন্তু চলার পথ আলাদা হলেও এদের ডিলারশিপ একই থাকছে। এমন কথাই জানালেন Mahindra-র কর্ণধার আনন্দ মাহিন্দ্রা (Anand Mahindra)।

সম্প্রতি আনন্দ মাহিন্দ্রা একটি টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, “হারিয়ে যাওয়া দুই ভাই আবার একসাথে।” সাথে তিনি জাওয়া (Jawa) ও ইয়েজদি (Yezdi)-র ডিলারশিপের একটি ছবি পোস্ট করেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে একটাই শোরুম ভাগাভাগি করে কাজ চালাচ্ছে সংস্থা দুটি। আগামী দিনেও তারা একই ডিলারশিপ থেকেই নিজেদের পণ্য বিক্রি করবে, এমনটাই আশা করা হচ্ছে। আসুন মোটরসাইকেল তিনটির দাম, রঙ ও ইঞ্জিন সম্পর্কে আরেকবার চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক।

Yezdi Adventure, Scrambler, Roadster : দাম (Yezdi Adventure, Scrambler, Roadster : Price)

ইয়েজদি অ্যাডভেঞ্চার (Yezdi Adventure) তিনটি রঙে বেছে নেওয়া যাবে। কালার স্কিম অনুযায়ী এগুলির দাম আলাদা। যেমন, স্লিক সিলভার, ম্যাম্বো ব্ল্যাক ও রেঞ্জার ক্যামো কালার স্কিমের মডেলগুলির মূল্য যথাক্রমে ২.০৯ লক্ষ টাকা, ২.১১ লক্ষ টাকা ও ২.১৮ লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম)।

অন্যদিকে ইয়েজদি স্ক্র্যাম্বলার ও রোডস্টার (Yezdi Scrambler ও Roadster)-এর দাম ১.৯৮ লাখ টাকা থেকে শুরু হয়ে ২.১৯ লাখ টাকা পর্যন্ত (এক্স-শোরুম)

Yezdi Adventure, Scrambler, Roadster : রঙ (Yezdi Adventure, Scrambler, Roadster : Colour)

ইয়েজদি অ্যাডভেঞ্চারের রঙ পূর্বেই আলোচনা করা হয়েছে। অন্যদিকে ইয়েজদি রোডস্টার (Yezdi Roadster) পাঁচটি রঙে চয়ন করা যাবে – স্মোক গ্রে, স্টিল ব্লু, হান্টার গ্রীন, গ্যাল্যান্ট গ্রে এবং সিন সিলভার। এগুলির মধ্যে প্রথম তিনটি ডার্ক থিমের সাথে এসেছে এবং পরের মডেলে দুটিতে রয়েছে ক্রোম থিম।

আবার, ইয়েজদি স্ক্র্যাম্বলার মডেলটি ছয়টি রঙের বিকল্পে বেছে নেওয়া যাবে – ফায়ার অরেঞ্জ, ইয়েলিং ইয়েলো, আউটলে অলিভ, রেবেল রেড, মিন গ্রীন ও মিডনাইট ব্লু।

Yezdi Adventure, Scrambler, Roadster : ইঞ্জিন (Yezdi Adventure, Scrambler, Roadster : Engine)

ইয়েজদি অ্যাডভেঞ্চার বাইকে ৩৩৪ সিসির লিকুইড কুল্ড সিঙ্গেল সিলিন্ডার ইঞ্জিন দেওয়া হয়েছে, যা ৮,০০০ আরপিএম গতিতে ৩০.২ পিএস পাওয়ার এবং ৬,৫০০ আরপিএম গতিতে ২৯.৯ এমএম টর্ক উৎপন্ন করতে পারে।

স্ক্র্যাম্বলার ও রোডস্টার দুটি মডেলেই দেওয়া হয়েছে একই ইঞ্জিন। সিঙ্গেল সিলিন্ডার লিকুইড কুল্ড ৩৩৪ সিসি ইঞ্জিন। যদিও মডেল বিশেষে এদের আউটপুট ভিন্ন। যেমন রোডস্টারের ইঞ্জিনটি থেকে পাওয়া যাবে ৭,৩০০ আরপিএমে ২৯.৭ পিএস শক্তি এবং ৬,৫০০ আরপিএমে ২৯ এনএম টর্ক।

অন্যদিকে স্ক্র্যাম্বলারের ইঞ্জিনটি থেকে উৎপন্ন হবে ৮,০০০ আরপিএমে ২৯.১ পিএস পাওয়ার এবং ৬,৭৫০ আরপিএমে ২৮.২ এনএম টর্ক। তিনটি বাইকেই গিয়ারবক্সের সংখ্যা ছয়।

শুভদীপ টেকগাপে অটোকার বিষয়ক লেখালিখি করে। এর আগে বিভিন্ন পোর্টালের সাথে যুক্ত থাকলেও, অটোকার নিয়ে টেকগাপে তার হাতেখড়ি। দিনকে দিন সে টেকগাপের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়ে উঠেছে।