বিক্রি হচ্ছে পৃথিবীতে এসে পড়া চাঁদের এক টুকরো, দাম কত জানেন?

you-can-buy-a-piece-of-moon-from-christie-at-price-2-million-euro

ইন্টারন্যাশনাল অকশন হাউস কৃষ্টি বিশ্বের সবচেয়ে বড় চন্দ্র উল্কাপিণ্ডগুলির মধ্যে একটি বিক্রি করার পরিকল্পনা নিতে চলেছে। এটি চাঁদের পঞ্চম সবথেকে বড় টুকরো যা অ্যাপোলো কার্যক্রমের দ্বারা পৃথিবীতে নিয়ে আসা যেকোনো চাঁদের পাথরের থেকেও আকারে বড়।

কৃষ্টি কিছুদিন আগে তৈরি করে NWA ১২৬৯১ যেটি একটি অত্যন্ত পূর্ণ চন্দ্র প্রস্তরখণ্ড। চন্দ্রের পাথর পৃথিবীতে পাওয়া সব থেকে দুর্লভ পদার্থের মধ্যে একটি। এই পাথরটি অ্যাপোলো কার্যক্রমের মাধ্যমে ফিরিয়ে আনা যেকোনো প্রস্তরখন্ডের থেকে আকারে বড়। এই উল্কাটির ওজন ১৩.৫ কিলোগ্রামের থেকেও বেশি এবং এর আগে এর থেকে বড় উল্কাখন্ড বিক্রি করা হয়নি। বর্তমানে এই পাথরের নমুনাটি কৃষ্টির ব্যক্তিগত বিক্রয়কেন্দ্র থেকে ২ মিলিয়ন ইউরোর (প্রায় ১৬,৮২,৬১,৪০৫ টাকা) বিনিময়ে ক্রয় করা যাবে।

কোন একটি মহাজাগতিক গ্রহাণু অথবা ধূমকেতুর সঙ্গে সংঘর্ষের ফলে লুনার মিটিওরাইট পৃথিবীতে এসে পড়ে। চাঁদের প্রত্যেকটি অংশই ঠিক এই রকম ভাবেই পৃথিবীতে এসেছে। এই নির্দিষ্ট মিটিওরাইটটি পশ্চিম সাহারাণ, আলজিরিয়া এবং মোরিটোরিয়ান অঞ্চলে মিটিওরাইট বর্ষনের একটি অংশ ছিল। এখানে প্রায় ৩০টি আলাদা আলাদা উল্কাপিণ্ডকে একত্র করা হয়েছিল তারপর সেগুলির বিশ্লেষণের মাধ্যমে জানানো হয় যে, প্রত্যেকটি লুনার মিটিওরাইট আলাদা আলাদা মহাজাগতিক ঘটনার ঐতিহ্যবাহী। তবে প্রতিটি চন্দ্র উল্কাই একটি ইভেন্ট থেকেই সৃষ্টি হয়েছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য এই নির্দিষ্ট উল্কা খন্ডটি অর্থাৎ NWA ১২৬৯১ দু’বছর আগে সাহারা মরুভূমি থেকে পাওয়া গিয়েছিল।

এই উল্কা খন্ডটি ছাড়াও কৃষ্টির তরফ থেকে ১৩টি লোহার উল্কাও বিক্রি করা হচ্ছে। এইগুলির দাম রাখা হয়েছে ১.৪ মিলিয়ন ইউরোর কাছাকাছি। এই উল্কাগুলিও ইমিডিয়েট পারচেসের জন্য কৃষ্টির প্রাইভেট সেলে রাখা হয়েছে।