আয় বাড়াতে চলেছে ইউটিউবারদের, Super Thanks টুল আনছে YouTube

youtube-brings-super-thanks-tool-for-increase-content-creator-earning
YouTube আনলো Super Thanks টুল

টেক জায়ান্ট গুগলের ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম, ইউটিউব (YouTube)-এর জনপ্রিয়তা এই মুহূর্তে আকাশছোঁয়া। দৈনিক অগুনিত দর্শক এবং কয়েক মিলিয়ন কনটেন্ট আপলোড হওয়া এই ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মটি প্রতিনিয়তই তাদের অ্যাপ বা ওয়েব ভার্সনে কোনো না কোনো নতুন ফিচার রোল আউট করছে। সেক্ষেত্রে এবার কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের জন্য আছে একটি সুখবর। আরও অর্থ উপার্জনের জন্য ইউটিউব “সুপার থ্যাঙ্কস” (Super Thanks) নামের একটি নতুন টুল তাদের প্ল্যাটফর্মে জুড়তে চলেছে। এই ফিচারটির মাধ্যমে কনটেন্ট ক্রিয়েটররা দর্শকের সঙ্গে আরও মজবুত সম্পর্ক তৈরীর পাশাপাশি, টাকাও উপার্জন করতে পারবেন।

YouTube আনলো Super Thanks টুল

ইউটিউব একটি ব্লগপোস্টে জানিয়েছে যে “আমরা ভিউয়ার ও কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের জন্য সুপার থ্যাঙ্কস ফিচারটি এনে খুবই আনন্দিত বোধ করছি। এরফলে কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের আয় বাড়বে।”

ভিউয়াররা এখন ইউটিউবে ভিডিও দেখার সময় ক্রিয়েটরের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ এবং সমর্থন দেখানোর জন্য ‘সুপার থ্যাঙ্কস’ ক্রয় করতে পারবেন। এখানে দর্শকরা একটি অ্যানিমেটেড জিআইএফ দেখতে পাবেন এবং সুপার থ্যাঙ্কস ক্রয় করার জন্য একটি অতিরিক্ত বোনাস হিসাবে তারা একটি স্বতন্ত্র, বর্ণময় কমেন্ট করতে পারবেন, যা ক্রিয়েটরের সঙ্গে তার সম্পর্ক স্থাপন করবে এবং ক্রিয়েটর সেই কমেন্টের ওপর নিজস্ব প্রতিক্রিয়া জানাবে। বর্তমানে সুপার থ্যাঙ্কস ফিচারটিকে ২ ডলার থেকে ৫০ ডলারের (বিভিন্ন দেশের প্রচলিত মুদ্রা অনুযায়ী তদরূপ) মধ্যে উপলব্ধ করা হয়েছে।

আসলে পূর্বের সুপার চ্যাট, সুপার স্টিকারের মতোই সুপার থ্যাঙ্কসের ফলে ভিডিও নির্মাতাদের দ্বিগুণ দায়িত্ব পালন করতে হবে। দর্শক ভক্তবৃন্দের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন যেমন হবে তেমন অর্থ উপার্জনের একটি নতুন পথ তৈরী করল ইউটিউব।

ইতিমধ্যেই ইউটিউবের বিটা ভার্সনে সুপার থ্যাঙ্কস ফিচারটিকে খুঁজে পাওয়া গেছে। আজকের পর থেকে ৬৮ টি দেশে ডেক্সটপে ও মোবাইলের ক্ষেত্রে অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস ডিভাইসে কনটেন্ট ক্রিয়েটর ও ভিউয়ারদের জন্য ফিচারটি চালু হয়ে যাবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।