ZTE Axon 30 Ultra ও Axon 30 Pro অসাধারণ ক্যামেরা ও স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর সহ লঞ্চ হল

ZTE Axon 30 Ultra and axon 30 pro launched with 64mp quad camera snapdragon 888 soc price specifications

ZTE তাদের দুটি প্রিমিয়াম ফোন Axon 30 Pro এবং Axon 30 Ultra এর ওপর থেকে পর্দা সরালো। বিগত কয়েক মাস ধরে এই সিরিজ কে নিয়ে জোর চর্চা চলছিল। অবশেষে আজ একটি ভার্চুয়াল লঞ্চ ইভেন্টের মাধ্যমে ফোন দুটি কে লঞ্চ করছে জেডটিই। যদিও এই সিরিজের বেস মডেল, ZTE Axon 30 কিছুদিন পরে আসবে বলে কোম্পানির তরফে জানানো হয়েছে। যাইহোক জেডটিই অ্যাক্সন ৩০ প্রো ও অ্যাক্সন ৩০ আল্ট্রা এর কথা বললে, এই দুই ফোনে আছে কোয়ালকমের লেটেস্ট স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর, ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট ও কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা। আসুন ZTE Axon 30 Pro ও Axon 30 Ultra ফোন দুটির দাম ও সম্পূর্ণ স্পেসিফিকেশন জেনে নিই।

ZTE Axon 30 Pro ও Axon 30 Ultra এর দাম

জেডটিই অ্যাক্সন ৩০ প্রো ও অ্যাক্সন ৩০ আল্ট্রা তিনটি করে স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের সাথে লঞ্চ হয়েছে। এর মধ্যে প্রো ভার্সনটি পাওয়া যাবে,‌ ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ, ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং ৮ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ সহ। এদের দাম যথাক্রমে ২,৯৯৮ ইউয়ান (প্রায় ৩৪,৪০০ টাকা), ৩,২৯৮ ইউয়ান (প্রায় ৩৭,৯০০ টাকা) এবং ৩,৫৯৮ ইউয়ান (প্রায় ৪১,৩০০ টাকা)।

অন্যদিকে Axon 30 Ultra এর ৮ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজের দাম ৪,৬৯৮ ইউয়ান ( প্রায় ৫৩,৯০০ টাকা)। আবার এর ১২ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ এবং ১৬ জিবি র‌্যাম ও ১টিবি স্টোরেজের যথাক্রমে মূল্য রাখা হয়েছে ৪,৯৯৮ ইউয়ান (প্রায় ৫৭,৩০০ টাকা) এবং ৬,৬৬৬ ইউয়ান (প্রায় ৭৬,৫০০ টাকা)।

জেডটিই অ্যাক্সন ৩০ প্রো অবসিডিয়ান ব্ল্যাক ও মিষ্টি রেইন ব্লু কালার এসেছে। আবার ব্ল্যাক, ব্লু, হোয়াইট ও কফি কালারে পাওয়া যাবে অ্যাক্সন ৩০ আল্ট্রা। শেষের ফোনটি গ্লোবাল মার্কেটে শীঘ্রই আসবে বলে কোম্পানি জানিয়েছে।

ZTE Axon 30 Ultra ও Axon 30 Pro এর স্পেসিফিকেশন

জেডটিই অ্যাক্সন ৩০ আল্ট্রা তে আছে ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস অ্যামোলেড কার্ভড পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লে এসেছে ১৪৪ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ৩০০ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট, ৯৫ শতাংশ স্ক্রীন টু বডি রেশিও ও এইচডিআর ১০ প্লাস সার্টিফিকেশন সহ। অ্যাক্সন ৩০ প্রো-ও একই ডিসপ্লে সহ এসেছে। কেবল এর স্ক্রীন টু বডি রেশিও ৯৩ শতাংশ এবং টাচ স্যাম্পলিং রেট ৩৬০ হার্টজ।

এই দুটি ফোনেই ব্যবহার করা হয়েছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর। সাথে আছে LPDDR5 র‌্যাম ও UFS 3.1 স্টোরেজ। এতে থ্রি লেয়ার আইস কোল্ড ভিসি লিকুইড কুলিং টেকনোলজি বর্তমান।

ফটোগ্রাফির জন্য Axon 30 Ultra ফোনের পিছনে পাওয়া যাবে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ। এই ক্যামেরাগুলি ওআইএস সহ ৬৪ মেগাপিক্সেল Sony IMX686 প্রাইমারি সেন্সর (এফ/১.৬), ১২০ ডিগ্রি ফিল্ড অফ ভিউ সহ ৬৪ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স, ৬৪ মেগাপিক্সেল সুপার হিউম্যান ক্যামেরা (এফ/১.৯) এবং ৮ মেগাপিক্সেল পেরিস্কোপ লেন্স। শেষের ক্যামেরায় ৫এক্স অপটিক্যাল জুম ও ওআইএস সাপোর্ট করবে। সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য এই ফোনের সামনে ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে।

আবার Axon 30 Pro এর পিছনেও ৪টি ক্যামেরা সেন্সর উপস্থিত। এই ক্যামেরাগুলি হল ৬৪ মেগাপিক্সেল Sony IMX682 প্রাইমারি সেন্সর, ১২০ ডিগ্রি ফিল্ড অফ ভিউ সহ ৬৪ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স, ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর।

দুটি ফোনই অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড MyOS কাস্টম স্কিনে চলে। আল্ট্রা মডেলে পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ৬৬ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৪,৬০০ এমএএইচ ব্যাটারি। অন্যদিকে প্রো মডেলে পাওয়া যাবে ৪,২০০ এমএএইচ ব্যাটারি। যার সাথে ৫৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

Passionate techie. Professional tech writer. A true cricket fan. Julai is a senior editor For Techgup and has frequently written about smartphones, apps, telecom News. You can follow him on Twitter @Julai_Mondal.