ZTE Axon 30 Ultra ৬৪ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ও স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর সহ গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চ হল

zte-axon-30-ultra-launched-in-global-market-pre-order-price-specifications

ZTE গত মাসে চীনে Axon 30 Pro এবং Axon 30 Ultra প্রিমিয়াম স্মার্টফোন লঞ্চ করেছিল। ফোন দু’টির মধ্যে Axon 30 Ultra-র গ্লোবাল প্রি-বুকিং আগামী ২৭ মে থেকে আরম্ভ হচ্ছে। অর্থাৎ চীনে লঞ্চ হওয়ার পর ডিভাইসটি এখন গ্লোবাল মার্কেটে পাড়ি দিতে প্রস্তুত। এদিকে অগ্রিম বুকিং শুরু হওয়ার আগেই ZTE আজ Axon 30 Ultra-র দাম ঘোষণা করেছে। গ্লোবাল মার্কেটে ফোনটির দাম শুরু হচ্ছে ৭৪৯ ডলার (প্রায় ৫৪,২০০ টাকা) থেকে। এটি সর্বোচ্চ ১২ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে উপলব্ধ হবে। স্পেসিফিকেশন এবং স্টোরেজ অনুযায়ী Axon 30 Ultra-র সম্পূর্ণ দাম এখন দেখে নেওয়া যাক।

ZTE Axon 30 Ultra : দাম

Axon 30 Ultra গ্লোবাল মার্কেটে দু’টি স্টোরেজ কনফিগারেশনে পাওয়া যাবে। এর ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম ৭৪৯ ডলার / ৬২০ ইউরো (প্রায় ৫৪,২০০ টাকা) রাখা হয়েছে। আবার এর ১২ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজের দাম পড়বে ৮৪৯ ডলার / ৬৯৯ ইউরো (প্রায় ৬২,২৩১ টাকা)।

ZTE Axon 30 Ultra : স্পেসিফিকেশন

জেডটিই অ্যাক্সন ৩০ আল্ট্রা স্মার্টফোনে ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস অ্যামোলেড কার্ভড পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে পাওয়া যাবে। এটি ১৪৪ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ৩০০ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট, ৯৫ শতাংশ স্ক্রীন টু বডি রেশিও ও এইচডিআর ১০ প্লাস সার্টিফিকেশন সহ এসেছে। এই ফোনে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। সাথে আছে LPDDR5 র‌্যাম ও UFS 3.1 স্টোরেজ।

জেডটিই অ্যাক্সন ৩০ আল্ট্রা-র পিছনে চারটি ক্যামেরা বর্তমান — OIS সহ ৬৪ মেগাপিক্সেল Sony IMX686 প্রাইমারি সেন্সর (এফ/১.৬), ১২০ ডিগ্রি ফিল্ড অফ ভিউ সহ ৬৪ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স, ৬৪ মেগাপিক্সেল সুপার হিউম্যান ক্যামেরা (এফ/১.৯) এবং ৫x অপটিক্যাল জুম ও OIS সাপোর্ট যুক্ত ৮ মেগাপিক্সেল পেরিস্কোপ লেন্স। সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য এই ফোনের সামনে ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে।

জেডটিই অ্যাক্সন ৩০ আল্ট্রা অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড মাইওএস ১১ কাস্টম স্কিনে চলে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য স্মার্টফোনে ৬৬ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৪,৬০০ এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷