ইমেজ ফিউশন প্রযুক্তি ও 18GB র‌্যামের সাথে আসছে ZTE Axon 30 Ultra Space Edition

নতুন এই ফোনটির রিয়ার প্যানেলে কোয়াড-ক্যামেরা সেটআপ এবং উন্নত ইমেজ ফিউশন প্রযুক্তি থাকবে

zte-axon-30-ultra-space-edition-with-image-fusion-technology-launch-tomorrow

ZTE কয়েকদিন আগেই নিশ্চিত করে যে, তারা দেশীয় বাজারে নিজেদের ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন, Axon 30 Ultra (অ্যাক্সন ৩০ আল্ট্রা)-এর একটি নতুন ভ্যারিয়েন্ট লঞ্চ করবে। আগামীকাল অর্থাৎ ২৫শে নভেম্বর, ZTE Axon 30 Ultra Space Edition নামের এই স্পেশাল এডিশনের ওপর থেকে পর্দা সরানো হবে। তবে ফোনটি আনুষ্ঠানিকভাবে লঞ্চ হওয়ার আগে, ZTE এর একটি টিজার শেয়ার করেছে, যাতে ফোনটির রিয়ার প্যানেলে কোয়াড-ক্যামেরা সেটআপ এবং উন্নত ইমেজ ফিউশন প্রযুক্তি থাকার বিষয়টি প্রকাশ পেয়েছে।

যারা জানেন না তাদের বলি, ইমেজ ফিউশন টেকনোলজি মূলত বিভিন্ন ক্যামেরা লেন্স ব্যবহার করে ক্যাপচার করা ফটোগুলিকে একটি একক ছবিতে একত্রিত করে, যাতে উচ্চতর রেজোলিউশন, ভাল লো লাইট পারফরম্যান্স এবং লোয়ার নয়েজ লেভেলের মত বৈশিষ্ট্য উপলব্ধ হয়।

Axon 30 Ultra Space Edition সম্পর্কে আগে কী জানা গিয়েছে?

এর আগে জেডটিই, অ্যাক্সন ৩০ আল্ট্রা স্পেস এডিশন স্মার্টফোনের কিছু হাই-ডেফিনিশন ইমেজ প্রকাশ করেছিল, যাতে ফোনে চীনা মহাকাশচারী টেইকোনট (TAIKONAUT)-এর নামাঙ্কিত বিশেষ লোগো বা ব্র্যান্ডিং পরিলক্ষিত হয়েছে। এছাড়াও জেডটিই-র তরফে বলা হয়েছে যে, এই নতুন ডিভাইসটিতে ১৮ জিবি র‌্যাম এবং ১ টিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ থাকবে।

Axon 30 Ultra Space Edition-এর সম্ভাব্য ফিচার

আশা করা হচ্ছে নতুন অ্যাক্সন ৩০ আল্ট্রা স্পেস এডিশন ফোনের স্পেসিফিকেশন অ্যাক্সন ৩০ আল্ট্রার অনুরূপ হবে। সেক্ষেত্রে এটি ১৪৪ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং ২০:৯ এসপেক্ট রেশিওযুক্ত ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি+ (১০৮০×২৪০০ পিক্সেল) AMOLED ডিসপ্লে সহ আসতে পারে। ডিসপ্লের প্রোটেকশনের জন্য ব্যবহার করা হতে পারে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫। আবার এতে পাওয়া যেতে পারে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর, LPDDR5 র‌্যাম এবং UFS 3.1 স্টোরেজ। এছাড়া এই ফোনে থাকতে পারে ৬৬ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট ও ৪,৬০০ এমএএইচ ব্যাটারি।

ফটোগ্রাফির ক্ষেত্রে নতুন জেডটিই ফোনের রিয়ার প্যানেলে ৬৪ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা, ৬৪ মেগাপিক্সেল ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল লেন্স, ১২০ ডিগ্রি FOV সহ একটি ৬৪ মেগাপিক্সেল আল্ট্রাওয়াইড শ্যুটার এবং একটি ৮ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো লেন্স সহ কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ দেখা যেতে পারে। যেখানে সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য থাকতে পারে ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা।

A person who enjoys creating, buying, testing, evaluating and learning about new technology.