Zypp Cargo : লঞ্চ হল ভারতের প্রথম B2B হেভি ডিউটি IoT এনাবেল্ড ইলেকট্রিক স্কুটার

zypp-cargo-b2b-electric-scooter-launched-in-india-with-iot-enabled-price-features
Zypp Cargo ইলেকট্রিক স্কুটার ভারতে লঞ্চ হল

লাস্ট মাইল ডেলিভারি সেগমেন্টে সুপরিচিত নাম Zypp Electric ভারতের প্রথম বিজনেস-টু-বিজনেস হেভি-ডিউটি ইলেকট্রিক স্কুটার ‘Zypp Cargo’ লঞ্চ করে ফেলল। লাস্ট মাইল লজিটিক্সের জন্য বিশেষভাবে নির্মিত এই ব্যাটারিচালিত স্কুটারে সর্বোচ্চ ২৫০ কেজি পণ্য চাপানো যাবে। ৪০ অ্যাম্পিয়ার-আওয়ার ব্যাটারির সাহায্যে এটি এক চার্জে ১২০ কিমি পথ চলতে পারবে। কোম্পানির দাবি, তিন বছরের বেশি বিস্তৃত গবেষণার ভিত্তিতে তারা বৈদ্যুতিক কার্গো স্কুটারটি বাজারে আনতে পেরেছে।

Zypp Cargo-র নানাবিধ কাজের জন্য তৈরি করা হয়েছে। মুদিখানা দ্রব্য ডেলিভারি, ফুড ডেলিভারি, গ্যাস সিলিন্ডার ডেলিভারি, ই-কমার্স বাল্ক শিপমেন্টের কাজে যেমন এটি ব্যবহার করা যাবে। পাশাপাশি ডুয়েল সিটিংয়ের সুবিধা থাকায় একে বাইক ট্যাক্সিতে রূপান্তর করা যাবে। এত ভার্সেটাইল যে, Zypp Cargo বি টু সি (বিজনেস টু কনজিউমার) এবং বি টু বি (বিজনেস টু বিজনেস) উভয় ক্ষেত্রে ডেলিভারির জন্য উপযুক্ত৷ স্কুটারের সামনের দিকে, পিছনে, পাশে – সব দিকেই পণ্য রাখা যাবে।

Zypp Cargo ডুয়েল ব্যাটারি সিস্টেম সাপোর্ট করে। ফলে বেশি ড্রাইভিং রেঞ্জের জন্য ডুয়েল ব্যাটারি ভ্যারিয়েন্টে বেছে নেওয়ার সুবিধা থাকছে। আবার ব্যাটারি সোয়াইপেবল হওয়ার ফলে লাস্ট মেইল ডেলিভারি দ্রুততার সাথে করা যাবে। প্রাথমিকভাবে দিল্লিতে এটি উপলব্ধ হবে। পারফরম্যান্স এবং কার্যকারিতার ভিত্তিতে সুদূর ভবিষ্যতে অন্যান্য শহরেও এই কার্গো ই-স্কুটার লঞ্চ করা হবে বলে সংস্থাটি জানিয়েছে।

Zypp Cargo-এর ফিচারের কথা বললে, এতে মেটাল বডিওয়ার্ক এবং ডিজিটাল কালার ডিসপ্লে রয়েছে। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ও ইন্টারনেট অফ থিংস (IoT)-এর সাথে Zypp Cargo এনাবেল্ড করা থাকবে। যার ফলে অপারেটররা গাড়ি, ব্যাটারি, এবং গাড়ির চালকেরা গাড়ি নিয়ে কোথায় ও কখন বেরোচ্ছে, তা নিরীক্ষণ করতে পারবে।

Zypp Cargo-র সিঙ্গেল ব্যাটারি ভ্যারিয়েন্টের দাম রাখা হয়েছে ৫৯,৯০০ টাকা। আবার এর ডুয়েল ব্যাটারি ভ্যারিয়েন্ট ৭৪,০০০ টাকায় পাওয়া যাবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷