WhatsApp ব্যবহারকারীদের জন্য সুখবর, QR কোড স্ক্যান করেই চ্যাট ট্রান্সফার হবে, কীভাবে দেখে নিন

হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের চ্যাট বা ডেটা স্থানান্তর করার জন্য প্রথমে নিশ্চিত করতে হবে যে, উভয় ফোনই অন আছে এবং একই ওয়াইফাই নেটওয়ার্কের সাথে সংযুক্ত আছে

সম্প্রতি WhatsApp একটি নতুন ফিচার চালু করেছে। যার মাধ্যমে QR কোড ব্যবহার করে খুব দ্রুত উপায়ে ব্যবহারকারীরা পুরানো ফোন থেকে একটি নতুন ফোনে সমস্ত চ্যাট স্থানান্তর করতে পারবেন। আর ব্যবহারকারীরা যদি একই অপারেটিং সিস্টেমের একটি নতুন ফোনে স্যুইচ করেন, তাহলে তারা Wi-Fi ব্যবহার করে নতুন QR কোড স্ক্যান করে তাদের WhatsApp ডেটা স্থানান্তর করতে পারবেন।

WhatsApp ব্যবহারকারীরা কীভাবে এই নতুন পদ্ধতি ব্যবহার করবেন?

হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের চ্যাট বা ডেটা স্থানান্তর করার জন্য প্রথমে নিশ্চিত করতে হবে যে, উভয় ফোনই অন আছে এবং একই ওয়াইফাই নেটওয়ার্কের সাথে সংযুক্ত আছে। এরপর প্রথমে পুরানো ডিভাইসে হোয়াটসঅ্যাপ খুলে ‘সেটিংস’ অপশনে যেতে হবে, সেখানে গিয়ে ‘চ্যাট’ অপশনে ক্লিক করতে হবে এবং তারপর ‘চ্যাট ট্রান্সফার’ অপশন সিলেক্ট করতে হবে। এই পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করার পর চ্যাট ট্রান্সফার প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ করার জন্য নতুন ফোন থেকে একটি কিউআর কোড স্ক্যান করার অনুরোধ করা হবে। আর কিউআর কোড স্ক্যান করা হয়ে গেলেই আপনার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট গুলি পুরনো ডিভাইস থেকে নতুন ডিভাইসে চলে আসবে।

উল্লেখ্য, WhatsApp এর তরফে বলা হয়েছে যে, নতুন কিউআর কোড স্ক্যান ফিচারের মাধ্যমে ডেটা ট্রান্সফার করা থার্ড পার্টি অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করার চেয়ে বেশি নিরাপদ। থার্ড পার্টি অ্যাপ্লিকেশন গুলিতে কিছু গোপনীয়তার অভাব থাকে।

উল্লেখ্য, আগে WhatsApp, ব্যাকআপের জন্য ক্লাউড ব্যাকআপ ব্যবহার করত। কিন্তু নতুন ফিচার আসার ফলে ক্লাউডে চ্যাট ব্যাকআপ নেওয়ার প্রয়োজন হবে না। তবে, নিয়মিত ডেটা ব্যাকআপ রাখা ভালো, কারণ এই পদ্ধতিটি ব্যবহার করে দ্রুত বড় মিডিয়া ফাইল এবং অ্যাটাচমেন্ট স্থানান্তর করতে পারবেন।

প্রসঙ্গত, WhatsApp কিছুমাস আগে আইফোন (iOS) থেকে অ্যান্ড্রয়েড এবং অ্যান্ড্রয়েড থেকে iOS ডেটা মাইগ্রেশন ফিচার নিয়ে এসেছিল, আর এই উভয় ক্ষেত্রেই ডেটা ট্রান্সফার করার জন্য QR কোড স্ক্যান করা ছাড়াও কয়েকটি অতিরিক্ত পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে।