জনপ্রিয় বাইকের ফ্লেক্স-ফুয়েল ভার্সন আনল Bajaj, খরচ কমাতে ছুটবে পেট্রল + ইথানলে

ভারত মোবিলিটি শো ২০২৪-এ বাজাজ অটো (Bajaj Auto) তাদের ফ্লেক্স-ফুয়েল চালিত একজোড়া মোটরসাইকেলের উন্মোচন করেছে। এগুলি হল – Pulsar NS160 Flex ও Dominar E27.5। মডেল দুটি পেট্রোলের সাথে ইথানলের মিশ্রিত জ্বালানিতে চলতে সক্ষম। তবে আজকের আলোচনা Dominar E27.5-কে কেন্দ্র করে। চলুন মডেলটি সম্পর্কে বিশদে জেনে নেওয়া যাক।

Bajaj Dominar E27.5

Bajaj Dominar 400-এর ফ্লেক্স-ফুয়েল ভার্সনই হচ্ছে Dominar E27.5। এমন নামকরণে মাহাত্ম্য এই যে, এটি পেট্রোলের সাথে ২৭.৫% ইথানলের মিশ্রণে ছুটতে সক্ষম। জানিয়ে রাখি, Bajaj Dominar 400-এর ২০২৪ মডেলটি E20-তে (২০% ইথানলের মিশ্রণ) চলতে পারে। আরও বেশি পরিমাণ ইথানলের মিশ্রণেও যাতে এটি ছুটতে পারে সেজন্যই নতুন মডেল আনা হয়েছে। তবে ভারত মোবিলিটি শো ২০২৪-এ প্রদর্শিত অন্যান্য বাইকের চাইতে ইথানলের অনুপাতে এখনও পিছিয়ে ডমিনার।

হালফিলে প্রদর্শিত বেশিরভাগ ফ্লেক্স-ফুয়েল মোটরসাইকেল, পেট্রোলের সাথে ৮৫ শতাংশ পর্যন্ত ইথানলের মিশ্রিত জ্বালানিতে ছোটার ক্ষমতা রাখে। যাই হোক, ইঞ্জিন ছাড়া Dominar 400-র অন্যান্য কারিগরিতে কোন পরিবর্তন ঘটানো হয়নি। আগের মতই এটি একটি ৩৭৩ সিসি লিকুইড কোল্ড ইঞ্জিনে ছুটবে। যা থেকে ৮,৮০০ আরপিএম গতিতে সর্বোচ্চ ৩৯.৫ বিএইচপি এবং ৬,৫০০ আরপিএম গতিতে ৩৫ এনএম টর্ক পাওয়া যায়। সাথে যোগ্য সঙ্গত দিতে রয়েছে ৬-গতির গিয়ারবক্স।

গুরুত্বপূর্ণ ফিচার্স হিসেবে Bajaj Dominar 400-তে উপস্থিত ফুল এলইডি লাইটিং, ডুয়েল চ্যানেল এবিএস এবং নেগেটিভ এলসিডি ডিসপ্লে। সাসপেনশন হিসেবে এতে দেওয়া হয়েছে ৪৩ মিমি আপসাইড ডাউন ফ্রন্ট ফর্ক এবং গ্যাস চার্জ মোনোশক। এছাড়া সামনে ৩২০ মিমি ও পেছনে ২৩০ মিমি উপস্থিত। ডমিনারের ফ্লেক্স ফুয়েল ভার্সন কবে লঞ্চ হবে, সে বিষয়ে অবশ্য কিছু বলেনি বাজাজ।