23 জানুয়ারি জোড়া ধামাকা, Mavric ছাড়াও Xtreme 125R বাইক লঞ্চ করতে পারে Hero

নতুন বছর শুরু হতেই একঝাঁক মোটরসাইকেল লঞ্চের জন্য কোমর বেঁধেছে ভারতের টু হুইলারের বৃহত্তম নির্মাতা হিরো মোটোকর্প (Hero MotoCorp)। ক্রেতাদের নতুন উদ্দীপনায় ভরিয়ে দিতেই এই চমক বলে মনে করা হচ্ছে। আগামী ২৩ জানুয়ারি অর্থাৎ বিশ্ববরেণ্য নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্ম দিবসের দিন একজোড়া মোটরসাইকেল বাজারে আনতে পারে সংস্থা। চলুন আর কথা না বাড়িয়ে মডেল দুটি সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

Hero Mavrick 440

Harley-Davidson X440-এর ইঞ্জিন দিয়ে হিরো যে একটি নতুন মোটরসাইকেল লঞ্চ করতে চলেছে সেই বিষয়ে আর কোন সন্দেহের অবকাশ নেই। ইতিমধ্যেই যার নাম নিশ্চিত করা হয়েছে। Hero Mavrick 440 নামে আসতে চলা বাইকটিতে থাকছে একগুচ্ছ ফিচার। এখনও পর্যন্ত রিপোর্ট মারফত জানা গেছে, Hero Mavrick 440, X440-এর প্ল্যাটফর্মের উপর ভিত্তি করেই আসবে। এতে টেলিস্কোপিক ফ্রন্ট ফর্ক ও টুইন শক অ্যাবজর্বারের দেখা মিলেছে।

ব্রেকিংয়ের দায়িত্ব পালন করতে সামনে ৩২০ মিমি ও পেছনে ২৪০ মিমি ডিস্ক ব্রেক দেওয়া হচ্ছে। এতে থাকবে ডুয়েল চ্যানেল এবিএস। ৪৪০ সিসি, সিঙ্গেল সিলিন্ডার, অয়েল কুল্ড ইঞ্জিনে ছুটবে বাইকটি। এটির আউটপুট ২৭ বিএইচপি এবং ৩৮ এনএম। ইঞ্জিনকে যোগ্য সঙ্গত দিতে থাকছে ৬-গতির গিয়ারবক্স।

Hero Xtreme 125R

Mavrick 440-র পাশাপাশি হিরো আরও একটি প্রিমিয়াম স্পোর্টি ১২৫ সিসি মোটরসাইকেল লঞ্চের প্রস্তুতি চালাচ্ছে। অনুমান করা হচ্ছে, বাইকটি Xtreme 125R নামে বাজারে পা রাখবে। যদিও এই প্রসঙ্গে এখনও সংস্থার তরফে কোন নিশ্চিতবার্তা এসে পৌঁছায়নি। টেস্টিং চলাকালীন মোটরবাইকটির ফাঁস হওয়া ছবিতে পেশীবহুল ফুয়েল ট্যাঙ্ক এক্সটেনশনের দেখা মিলেছে।

Hero Xtreme 125R-এ আপাদমস্তক স্পোর্টি ডিজাইন ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। এতে উপস্থিত গ্র্যাব রেল সহ একটি স্প্লিট সিট। Glamour 125-এর ইঞ্জিনটি এতে ব্যবহার করা হবে বলে অনুমান। তবে টিউনিং আলাদা হতে পারে। জানিয়ে রাখি, গ্ল্যামারে ব্যবহৃত ১২৫ সিসি ইঞ্জিন থেকে ১২ বিএইচপি শক্তি এবং ১০.৫ এনএম টর্ক উৎপন্ন হয়। মূলত TVS Raider 125-কে টেক্কা দিতেই বাজারে আসছে এটি। দাম ৯৫ হাজার টাকার (এক্স-শোরুম) কাছাকাছি রাখা হতে পারে।