Primebook 4G Laptop: দাম 15 হাজার টাকার কম, বিক্রি শুরু হচ্ছে প্রাইমবুক ৪জি ল্যাপটপের

Published on:

Primebook 4G Laptop Sale in India

শার্ক ট্যাঙ্ক সিজন ২ (Shark Tank season 2)-এর বিনিয়োগকারীদের সাহায্যে Primebook খুব শীঘ্রই শিক্ষার্থীদের জন্য প্রথম Android অপারেটিং সিস্টেম ভিত্তিক ল্যাপটপ Primebook 4G লঞ্চ করতে চলেছে। সাশ্রয়ী মূল্যের এই ল্যাপটপটি আগামী ১১ মার্চ থেকে Flipkart-এ বিক্রির জন্য উপলব্ধ হবে। উল্লেখ্য যে, ল্যাপটপটিকে একচেটিয়াভাবে বিভিন্ন স্তরের শিক্ষার্থীদের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে, যাতে তারা অত্যন্ত কমদামি একটি ডিভাইস ব্যবহার করেই ই-লার্নিংয়ের সমস্ত সুবিধাগুলি অ্যাক্সেস করতে পারে।

ভারতে ২০,০০০ টাকার কম দামের ল্যাপটপ লঞ্চ করার বিষয়ে প্রাইমবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও সিএমও আমান ভার্মা (Aman Verma) বলেছেন, এড-টেক ইন্ডাস্ট্রি এতদিন পর্যন্ত কনটেন্ট জেনারেশনের দিকে মনোনিবেশ করেছে। তবে আজকের এই অত্যাধুনিক টেকনোলজির যুগেও ভারতে ২৩ কোটিরও বেশি শিক্ষার্থীদের কাছে ল্যাপটপ উপলব্ধ নয়, যা এই মুহূর্তে ই-লার্নিংয়ের জন্য সবচেয়ে জরুরি ডিভাইস। তাই এই সমস্যার সমাধান করতেই সংস্থাটি সম্প্রতি ফ্লিপকার্টের সঙ্গে অংশীদারিত্ব করেছে। মি. ভার্মা আরও জানিয়েছেন যে, বহুল জনপ্রিয় একটি ই-কমার্স সাইটের সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে সাশ্রয়ী মূল্যের একটি ল্যাপটপ লঞ্চ করতে পেরে সংস্থাটি যারপরনাই আনন্দিত। এর দৌলতে শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি আপামর জনসাধারণও ব্যাপকভাবে উপকৃত হবেন বলে আশাবাদী তিনি।

Primebook 4G: মূল্য এবং প্রাপ্যতা

প্রাইমবুক ৪জি-র আসল দাম ১৬,৯৯০ টাকা। তবে প্রারম্ভিক অফার হিসেবে ব্যবহারকারীরা ফ্লিপকার্ট থেকে ১৪,৯৯০ টাকায় ডিভাইসটি কিনতে পারবেন। সংস্থার দাবি অনুযায়ী, ল্যাপটপটি খুব হালকা এবং বহন করার জন্য সুবিধাজনক। এটি অ্যাকাডেমিক অধ্যয়ন, বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ এবং প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে শিক্ষার্থীদেরকে ব্যাপকভাবে সাহায্য করবে। উল্লেখ্য যে, পড়ুয়াদের কাছে উক্ত ডিভাইসটিকে আরও সহজলভ্য করে তুলতে প্রাইমবুক এবং ফ্লিপকার্ট একযোগে ২৪ মাস পর্যন্ত নো-কস্ট ইএমআইয়ের সুবিধাও প্রদান করছে। এছাড়া, আকর্ষণীয় ব্যাঙ্ক অফার এবং এক্সচেঞ্জ বোনাসও পেতে সক্ষম হবেন গ্রাহকরা।

Primebook 4G: ফিচার এবং স্পেসিফিকেশন

মূলত পড়ুয়াদের কথা মাথায় রেখে ডিজ়াইন করা প্রাইমবুক ৪জি ল্যাপটপে একাধিক কার্যকর ফিচার মজুত রয়েছে। ডিভাইসটি একটি ৪জি ওয়্যারলেস সিম কার্ড সহ আসে, যার মাধ্যমে এটিকে খুব সহজেই ইন্টারনেটের সাথে কানেক্ট করা যাবে। ল্যাপটপটির জন্য অ্যান্ড্রয়েড ১১ (Android 11) অপারেটিং সিস্টেম ভিত্তিক বিশেষ স্কিন তৈরি করেছে সংস্থাটি, যার নাম প্রাইমওএস (PrimeOS) বা প্রাইম অপারেটিং সিস্টেম। কোম্পানির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, প্রাইম অপারেটিং সিস্টেমে ২০০ টিরও বেশি শিক্ষামূলক অ্যাপ্লিকেশন টেস্ট করা হয়েছে, এবং প্রতিটি অ্যাপই একদম সাবলীলভাবে রান করেছে। শুধু তাই নয়, উক্ত ওএস মারফত প্রাইম স্টোর (Prime Store)-এর মাধ্যমে ১০,০০০ টিরও বেশি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপের অ্যাক্সেস পেতে সক্ষম হবেন ইউজাররা।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, এই ল্যাপটপের সাহায্যে একবারে একাধিক উইন্ডো ওপেন করা যাবে। স্পষ্টতই, এর ফলে ল্যাপটপ কিংবা স্মার্টফোনের তুলনায় এই ডিভাইস শিক্ষার্থীদের জন্য ই-লার্নিং প্রক্রিয়াটিকে অধিকতর সহজ করে তুলবে। উল্লেখ্য, Primebook 4G-তে মিডিয়াটেক এমটি৮৭৮৮ (MediaTek MT8788) প্রসেসর রয়েছে, এবং এটি ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ (যা ২০০ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যেতে পারে) সহ আসে। ফলে ব্যবহারকারীরা নিজেদের প্রয়োজনীয় প্রচুর ডকুমেন্টস, ফটো এবং ভিডিও এই ডিভাইসে স্টোর করতে পারবেন। এছাড়া, আলোচ্য ল্যাপটপে রয়েছে ১১.৬ ইঞ্চি এইচডি ডিসপ্লে এবং একটি ২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। সংস্থার দাবি অনুযায়ী, একবার চার্জে ১২ ঘণ্টার ব্যাকআপ দিতে সক্ষম এই ডিভাইস।

সঙ্গে থাকুন ➥