ভারতে শুরু হল Samsung Galaxy Book 4 ল্যাপটপ সিরিজের প্রি-বুকিং, পাবেন জবরদস্ত ফিচার

লেটেস্ট Samsung Galaxy Book 4 ল্যাপটপ সিরিজের মডেলগুলি সংস্থার ওয়েবসাইট (Samsung.com), অফলাইন স্যামসাং রিটেইল স্টোর, শীর্ষস্থানীয় মাল্টি-রিটেল স্টোর এবং নির্বাচিত কয়েকটি ই-পোর্টালের মাধ্যমে প্রি-বুক করতে পারবেন

Samsung প্রায় এক মাস আগে তাদের হোম-মার্কেটে Galaxy Book 4 ল্যাপটপ সিরিজের ঘোষণা করেছিল। আর এখন দক্ষিণ কোরিয়ার এই টেক জায়ান্ট ভারত সহ বিশ্বব্যাপী লাইনআপটি লঞ্চের প্রস্তুতি নিচ্ছে। তবে লঞ্চের আগে ভারতীয় ক্রেতাদের জন্য Samsung Galaxy Book 4 ল্যাপটপ সিরিজের প্রি-বুকিং আজ থেকে শুরু হল। যার দরুন মনে করা হচ্ছে, চলতি মাসের সিরিজটি ভারতে পা রাখবে।

আগ্রহীরা, লেটেস্ট Samsung Galaxy Book 4 ল্যাপটপ সিরিজের মডেলগুলি সংস্থার ওয়েবসাইট (Samsung.com), অফলাইন স্যামসাং রিটেইল স্টোর, শীর্ষস্থানীয় মাল্টি-রিটেল স্টোর এবং নির্বাচিত কয়েকটি ই-পোর্টালের মাধ্যমে প্রি-বুক করতে পারবেন। আগাম বুকিংয়ের সময় ক্রেতাদের ১,৯৯৯ টাকার একটা টোকেন মানি দেওয়ার অনুরোধ করা হবে। এই টাকা পেমেন্ট করা হলে তবেই প্রি-বুকিংয়ের কাজ সম্পন্ন হবে।

এদিকে সেল অফারের অংশ হিসাবে, উক্ত ল্যাপটপ সিরিজের মডেলগুলির সাথে ৫,০০০ টাকার সমতুল্য বেনিফিট অফার করা হবে। যদিও সংস্থার তরফ থেকে এখনো এই বেনিফিট সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ্যে আনা হয়নি।

Samsung Galaxy Book 4 সিরিজের অধীনে মোট চারটি মডেল আসবে, যথা – Galaxy Book 4 Pro, Book 4 Pro 360, Book 4 360, এবং Galaxy Book 4 Ultra। টপ-এন্ড ভ্যারিয়েন্টটি তুলনায় দেরিতে লঞ্চ করা হবে বলে জানা গেছে। বাকি তিনটি মডেল চলতি মাসের শেষে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে।

Samsung Galaxy Book 4 সিরিজের স্পেসিফিকেশন

Samsung Galaxy Book 4 Pro মডেলটি ইন্টেল কোর আল্ট্রা ৫ / আল্ট্রা ৭ প্রসেসর এবং ইন্টেল আর্ক গ্রাফিক্স সহ লঞ্চ হবে। উইন্ডোজ ১১ অপারেটিং সিস্টেম চালিত এই ল্যাপটপে টাচ অপশন সহ ১৪-ইঞ্চি বা ১৬-ইঞ্চি AMOLED ডিসপ্লে সাইজ ভ্যারিয়েন্ট অফার করা হবে। এই নোটবুকে ভালো সাউন্ড সরবরাহের জন্য ডলবি অ্যাটমস সমর্থিত AKG কোয়াড স্পিকার সিস্টেম দেওয়া হবে। কানেক্টিভিটির জন্য অন্তর্ভুক্ত থাকছে – ওয়াইফাই ৬ই, ব্লুটুথ ৫.৩, এবং ইউএসবি টাইপ-সি চার্জিং পোর্ট। আবার পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ডিভাইসে ৬৫ ওয়াট চার্জিং সমর্থিত ৬৩/৭৬ ওয়াটআওয়ার ক্যাপাসিটির ব্যাটারি সমন্বিত থাকছে৷ ডিসপ্লে সাইজের উপর ভিত্তি করে এর ওজন ১.২৩ কেজি / ১.৫৬ কেজি হবে।

Samsung Galaxy Book 4 Pro 360 ল্যাপটপের স্পেসিফিকেশন উপরিউক্ত মডেলের অনুরূপ থাকছে। তবে এর ডিসপ্লে ৩৬০-ডিগ্রি হিঞ্জ ডিজাইন সাপোর্ট করবে। যার দরুন ডিভাইসটি ট্যাবলেট হিসাবেও ব্যবহার করা যাবে। এতে ১৬-ইঞ্চির AMOLED টাচ ডিসপ্লে দেওয়া হবে। আবার ডলবি অ্যাটমস সমর্থিত অডিও সিস্টেম, এস-পেন স্টাইলাস সাপোর্ট এবং ৬৫ ওয়াট চার্জিং সহ ৭৬ ওয়াটআওয়ার ব্যাটারি মিলবে এই ল্যাপটপে। এছাড়া স্টোরেজ হিসাবে ১৬ জিবি / ৩২ জিবি LPDDR5X র‍্যাম এবং ৫১২ জিবি / ১ টেরাবাইট স্টোরেজ উপলব্ধ।

সিরিজের টপ-এন্ড মডেল অর্থাৎ Samsung Galaxy Book 4 Ultra আসবে ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট যুক্ত ৩কে AMOLED ডিসপ্লে সহ। এতে এনভিডিয়া জিফোর্স আরটিএক্স ৪০৭০ / আরটিএক্স ৪০৫০ জিপিইউ এবং ইন্টেল কোর আল্ট্রা ৯ / আল্ট্রা ৭ প্রসেসর ব্যবহার করা হবে। স্টোরেজ হিসাবে ৬৪ জিবি পর্যন্ত LPDRR5X র‍্যাম এবং সর্বোচ্চ ২ টেরাবাইট SSD স্টোরেজ পাওয়া যাবে। কানেক্টিভিটির জন্য – থান্ডারবোল্ট ৪, ইউএসবি টাইপ-এ পোর্ট, এবং এইচডিএমআই ২.১ পোর্ট সামিল থাকছে। এই ল্যাপটপ ৭৬ ওয়াটআওয়ার ক্যাপাসিটির ব্যাটারি সহ আসবে, যা ইউএসবি টাইপ-সি পোর্টের মাধ্যমে ১৪০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। এটি ১৬.৫ মিমি পুরু হবে এবং ওজন থাকবে ১.৮৬ কেজি।

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি, দক্ষিণ কোরিয়ায় Samsung Galaxy Book 4 Pro ল্যাপটপ ২,১৫০,০০০ ওয়ান (প্রায় ১,৩৪,১০০ টাকা), Galaxy Book 4 Pro 360 বিকল্পটি ২,৬৫০,০০০ ওয়ান (প্রায় ১,৬৫,৩০০ টাকা) এবং Galaxy Book 4 Ultra মডেল ৩,৭৩০,০০০ ওয়ান (প্রায় ২,৩২,৭০০ টাকা) মূল্যে লঞ্চ হয়েছিল।