সস্তা ফোনে প্রিমিয়াম ফিচার্স! Oppo-র নতুন প্ল্যান বদলে দেবে স্মার্টফোন দুনিয়ার চালচিত্র

এখানে অস্বীকার করার কোনও জায়গা নেই, বর্তমানে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ফ্ল্যাগশিপ ফোন স্পেসিফিকেশনের দিক থেকে প্রায় একইরকম। এখন প্রায় সবকটি ফ্ল্যাগশিপেই লেটেস্ট Qualcomm Snapdragon প্রসেসর, 120 হার্টজ রিফ্রেশ রেট সহ ওলেড (OLED) ডিসপ্লে, সুপার-ফাস্ট চার্জিং, চিত্তাকর্ষক ক্যামেরা সেটআপ দেখা যায়। তাই অনেক ক্রেতাদের মধ্যেই নতুন ফ্ল্যাগশিপ ফোনের লঞ্চ নিয়ে উত্তেজনা আর আগের মতো নেই। প্রকৃত উদ্ভাবন এখন এন্ট্রি-লেভেল এবং মিড-রেঞ্জ মার্কেটে ঘটছে। প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার জন্য, নির্মাতারা সাশ্রয়ী মূল্যের ফোনে 1,000 ডলার (প্রায় 83,350 টাকা) প্রাইস রেঞ্জের এক্সক্লুসিভ ফিচার নিয়ে আসছে। আর এখন, ওপ্পো (Oppo) তাদের একটি বাজেট ফোনে প্রিমিয়াম ফোনের মতো IP68 সার্টিফিকেশন এবং কার্ভড ডিসপ্লে অফার করার পরিকল্পনা করছে বলে জানা গেছে।

Oppo-এর 150 ডলারের স্মার্টফোনে মিলবে 1,000 ডলারের ফ্ল্যাগশিপ ফোনের ফিচার

টিপস্টার ডিজিটাল চ্যাট স্টেশন দাবি করছেন যে, ওপ্পো আইপি68 সার্টিফিকেশন সহ একটি নতুন স্মার্টফোনের ওপর কাজ করছে। যা কার্ভড স্ক্রিন এবং 5,000 এমএএইচ ব্যাটারির সাথে আসবে। আসন্ন ওপ্পো ফোনটির প্রাইস পয়েন্টটি বিশেষভাবে আকষর্ণীয়, কারণ কোম্পানির লক্ষ্য হল বাজেট-ফ্রেন্ডলি সেগমেন্টেকে লক্ষ্য করা, যার মূল্য 150 ডলার (প্রায় 12,500 টাকা)-এর নীচে থাকবে।

যদিও, এই ফোনটির সম্পর্কে এই মুহূর্তে খুব বেশি তথ্য উপলব্ধ নেই। ডিজিটাল চ্যাট স্টেশন কোনও লঞ্চের তারিখ প্রকাশ করেননি। তবে, আইপি68 সার্টিফিকেশন এর আসন্ন লঞ্চের ইঙ্গিত দেয়। উন্নয়নশীল যে সব দেশে বাজেট রেঞ্জের চাহিদা সবচেয়ে বেশি, সেখানে সস্তা ফোনেও এই ধরনের বৈশিষ্ট্যগুলি যুক্ত হওয়ার খবরটি সত্যিই আশাপ্রদ।

উল্লেখ্য, শাওমি (Xiaomi)-এর মতো কিছু ব্র্যান্ড বর্তমানে বাজেট ফোনে আকর্ষণীয় মিড-রেঞ্জ ফিচার্স অফার করে, তবে এগুলির কোনোটিই এখনও এতটা সাশ্রয়ী হয়ে উঠতে পারেনি। আশা করা যায়, এক্ষেত্রে ওপ্পোর পদক্ষেপ তাদের অন্যান্য প্রতিদ্বন্দ্বী ব্র্যান্ডগুলিকেও উৎসাহিত করবে। সম্ভবত, শীঘ্রই বাজেট-ফ্রেন্ডলি অ্যান্ড্রয়েড ফোনগুলিতে আরও ভাল প্রসেসর দেখতে পাওয়া যাবে বলে আশা করা যায়।