Redmi Note সিরিজের নতুন মডেলে Android 12 ভার্সন, ভারতের মতো হতাশ হবে ইউরোপও

Published on:

Redmi Note 12 12 Pro European Variants with Android 12 OS

রেডমি তাদের Redmi Note 12 সিরিজের স্মার্টফোনগুলি ইউরোপীয় বাজারের ক্রেতাদের জন্য আসন্ন মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ২০২৩ (MWC 2023) সম্মেলনে লঞ্চ করবে বলে আশা করা হচ্ছে, যা আগামী সপ্তাহে বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে৷ ইউরোপের মার্কেটে Note 12 লাইনআপের অধীনে দুটি মডেল আসতে পারে – Redmi Note 12 5G এবং Note 12 Pro 5G। লঞ্চের আগে, এই দুটি স্মার্টফোনকে এবার এইচটিএমএল৫ (HTML5) টেস্ট ডেটাবেসে দেখা গেছে, যা হ্যান্ডসেট দুটির বিষয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রকাশ করেছে। আসুন তাহলে এগুলি দেখে নেওয়া যাক।

Redmi Note 12 5G এবং Note 12 Pro 5G-কে দেখা গেল HTML5 টেস্ট ডেটাবেসে

টিপস্টার সুধাংশু আম্ভোরের টুইট থেকে জানা গেছে যে, 22111317G মডেল নম্বর সহ রেডমি নোট ১২ ৫জি এবং 22101316G মডেল নম্বরের সাথে নোট ১২ প্রো ৫জি হ্যান্ডসেট দুটি এইচটিএমএল৫ (HTML5) টেস্ট ডেটাবেসে উপস্থিত হয়েছে। আর এই ডেটাবেসের পরীক্ষায় নোট ১২ সিরিজের স্ট্যান্ডার্ড এবং প্রো মডেলটি যথাক্রমে ৫২০ এবং ৪৭২ পয়েন্ট স্কোর করেছে। তবে, এই টেস্ট ডিভাইসগুলির সম্পর্কে একটি হতাশাজনক তথ্য প্রকাশ করেছে। দেখা যাচ্ছে যে, রেডমি নোট ১২ ৫জি এবং নোট ১২ প্রো ৫জি ভারতের মতো অ্যান্ড্রয়েড ১৩-এর পরিবর্তে অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেমের সাথে ইউরোপে লঞ্চ হবে।

যদিও, রেডমি নোট ১২ সিরিজের ডিভাইসগুলিতে তিন বছরের বড় আপডেট প্রদান করা হবে বলে জানা গেছে, তাই নোট ১২ ৫জি এবং নোট ১২ প্রো ৫জি অ্যান্ড্রয়েড ১৫ পর্যন্ত আপডেট গ্রহণ করবে বলে আশা করা যায়। আর সিকিউরিটি আপডেটের ক্ষেত্রে এগুলি অতিরিক্ত এক বছর অর্থাৎ মোট ৪ বছরের আপডেট পাবে। আগামী সপ্তাহে ইউরোপের বাজারে লঞ্চ হতে চলা এই ডিভাইসগুলি যেহেতু ইতিমধ্যেই ভারতে উপলব্ধ রয়েছে, তাই চলুন এক নজরে এগুলির স্পেসিফিকেশনগুলি দেখে নেওয়া যাক।

Redmi Note 12 এবং Note 12 Pro-এর স্পেসিফিকেশন

Redmi Note 12 এবং Note 12 Pro-তে ফুল-এইচডি+ রেজোলিউশন সহ ৬.৬৭ ইঞ্চির ডিসপ্লে রয়েছে, যা ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং ২৪০ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট অফার করে। তবে, রেগুলার মডেলে অ্যামোলেড (AMOLED) প্যানেল রয়েছে, সেখানে Note 12 Pro ওলেড (OLED) প্যানেলের সাথে এসেছে। হ্যান্ডসেটগুলির স্ক্রিনে ১০-বিট কালার ডেপ্থ, এইচডিআর১০+ এবং ডলবি ভিশনও সাপোর্ট করে। স্ট্যান্ডার্ড মডেলটি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪ জেন ১ চিপসেটের সাথে এসেছে। আর Pro মডেলটি মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ১০৮০ চিপসেট দ্বারা চালিত। দুই স্মার্টফোনেই এলপিডিডিআর৪এক্স র‍্যাম এবং ইউএফএস ২.২ স্টোরেজ মিলবে।

ফটোগ্রাফির জন্য, Redmi Note 12 5G-এর রিয়ার ক্যামেরা সেটআপের মধ্যে ৪৮ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরা সেন্সর এবং Pro মডেলে ৫০ মেগাপিক্সেলের সনি আইএমএক্স৭৬৬ প্রাইমারি ক্যামেরা সেন্সর উপস্থিত রয়েছে। উভয় ফোনেই একটি ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্স এবং একটি ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো সেন্সর অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। সেলফি তোলার জন্য, স্ট্যান্ডার্ড মডেলের সামনে একটি ১৩ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা অবস্থান করছে আর Note 12 Pro 5G-তে ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে৷

এছাড়াও, Redmi Note 12 এবং Note 12 Pro-তে একটি আইআর (IR) ব্লাস্টার, ডুয়েল স্টেরিও স্পিকার এবং একটি ৩.৫ মিলিমিটারের হেডফোন জ্যাক অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। ডিভাইসগুলি ডুয়েল সিম, ৫জি, ওয়াইফাই ৬, জিএনএসএস, এনএফসি এবং ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট সাপোর্ট করে। স্ট্যান্ডার্ড এবং Pro উভয় মডেলই অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক এমআইইউআই ১৩ (MIUI 13) ইউজার ইন্টারফেসে রান করে। আর সবশেষে পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, দুটি হ্যান্ডসেটেই ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। তবে স্ট্যান্ডার্ড মডেলটি ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং এবং Pro মডেলটি ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

সঙ্গে থাকুন ➥