Homeমোবাইলএকেই বলে ভাগ্য, iPhone 13 অর্ডার করে iPhone 14 পেলেন ক্রেতা

একেই বলে ভাগ্য, iPhone 13 অর্ডার করে iPhone 14 পেলেন ক্রেতা

Flipkart Big Billion Days Sale-এ iPhone 13 অর্ডার করে হাতে এল লেটেস্ট iPhone 14

অনলাইন শপিংয়ের ক্ষেত্রে নাকের বদলে নরুন পাওয়ার ঘটনা নতুন কিছু নয়। প্রায়শই শোনা যায় যে, ক্রেতারা যে প্রোডাক্টটি অর্ডার করেছিলেন, তার বদলে সম্পূর্ণ অন্য আর-একটি পণ্য তাঁর হাতে এসে পৌঁছেছে। সেক্ষেত্রে একটি দামি প্রোডাক্ট অর্ডার করে পরিবর্তে একটি কমদামি জিনিস হাতে পাওয়ার ঘটনাই বেশিরভাগ সময়ে ঘটে থাকে। তবে আজ এই প্রতিবেদনে আমরা আপনাদেরকে যে ঘটনাটির কথা জানাতে চলেছি, সেখানে কিন্তু একটু অন্য ছবি লক্ষ্য করা গিয়েছে। এক্ষেত্রে একজন ক্রেতা Flipkart থেকে iPhone 13 অর্ডার করে হাতে পেয়েছেন সদ্য রিলিজ হওয়া অপেক্ষাকৃত বেশি দামের লেটেস্ট iPhone 14! চলুন, ঘটনাটি ঠিক কী ঘটেছে সে সম্পর্কে একটু বিস্তারিতভাবে জেনে নেওয়া যাক।

Flipkart Big Billion Days Sale-এ iPhone 13 অর্ডার করে হাতে এল লেটেস্ট iPhone 14

আপনাদেরকে জানিয়ে রাখি, ফ্লিপকার্ট বর্তমানে গ্রাহকদের জন্য বিগ দশেরা সেল (Big Dussehra Sale)-এর আয়োজন করেছে। তবে উৎসবের মরশুমে ইউজারদের কেনাকাটার সুবিধার্থে গত ২৩ সেপ্টেম্বর সংস্থাটি ফ্লিপকার্ট বিগ বিলিয়ন ডেজ সেল (Flipkart Big Billion Days Sale) নিয়ে হাজির হয়েছিল, যেটি গত ৩০ সেপ্টেম্বর শেষ হয়েছে। এই সেলে সংস্থাটি ৫০,০০০ টাকারও কম খরচে আইফোন ১৩-এর বেস ভ্যারিয়েন্টটি কেনার সুযোগ দিয়েছিল ক্রেতাদের, যার এমনিতে দাম ৬৯,৯০০ টাকা। ফলে খুব স্বাভাবিকভাবেই এই বাম্পার অফারকে কাজে লাগিয়ে শত শত গ্রাহক ইতিমধ্যেই একটি ব্র্যান্ড-নিউ আইফোন ১৩ মডেলকে পকেটস্থ করে ফেলেছেন। আমরা আজ এই প্রতিবেদনে যে ক্রেতার কথা বলছি, তিনিও এই শত শত গ্রাহকেরই একজন। কিন্তু তফাৎটা হল, অন্যান্য খরিদ্দারদের থেকে তিনি কিছুটা বেশি ভাগ্যবান; কেননা তিনি ফ্লিপকার্টে আইফোন ১৩ অর্ডার করে হাতে পেয়ে গিয়েছেন গত মাসে রিলিজ হওয়া অপেক্ষাকৃত বেশি দামের আইফোন ১৪! সম্প্রতি টুইটার (Twitter)-এ ওই ব্যক্তি একথা সকলের সাথে শেয়ার করেছেন; এবং ঘটনাটি যে সত্যিই ঘটেছে, তার অকাট্য প্রমাণ হিসেবে অর্ডার করা প্রোডাক্ট এবং ডেলিভারির পর যে বক্সটি হাতে এসেছে, তার স্ক্রিনশটও সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মটিতে পোস্ট করেছেন তিনি।

Flipkart sends iPhone 14 instead 13

স্ক্রিনশটে দেখা গিয়েছে যে, ফ্লিপকার্ট থেকে আইফোন ১৩ কেনার জন্য ওই ব্যক্তি ৪৯,০১৯ টাকা প্রদান করেছিলেন; কিন্তু পরিবর্তে তিনি হাতে পেয়ে যান আইফোন ১৪, যার বেস ভ্যারিয়েন্টের দাম ৭৯,৯০০ টাকা। আবার, স্ক্রিনশটে প্যাকিং বক্সের গায়ে স্পষ্টভাবে আইফোন ১৪-এর লেবেলও দেখা গিয়েছে, যার ফলে ওই টুইটার ব্যবহারকারীর সাথে যে প্রকৃতপক্ষেই এই ঘটনা ঘটেছে, সে বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে গিয়েছেন সকলেই। যদিও এই ঘটনায় ফ্লিপকার্টের তরফে এখনও পর্যন্ত কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। সেক্ষেত্রে পুরোনো ফোন অর্ডার করে হাতে অপেক্ষাকৃত বেশি দামের লেটেস্ট মডেল এসে যাওয়ায় ওই ব্যক্তি জ্যাকপট পেয়ে গিয়েছেন বললেও খুব একটা ভুল বলা হবে না। এখন এই নতুন মডেলে কী কী নজরকাড়া ফিচার ব্যবহারের সুযোগ পাওয়া যাবে, আসুন এবার সে সম্পর্কে গুটিকয়েক কথা জেনে নিই।

iPhone 14-এর স্পেসিফিকেশন

লঞ্চ হওয়া মাত্রই ইউজারমহলে রটে গিয়েছিল যে, আইফোন ১৩ এবং আইফোন ১৪-এর মধ্যে ফিচারের বিশেষ কোনো তফাৎ নেই। তবে লেটেস্ট মডেল হওয়ায় পুরোনো সংস্করণের চাইতে কিছু বেশি সুবিধা যে আইফোন ১৪-এ অবশ্যই পাওয়া যাবে, সেকথা বলাই বাহুল্য। সেক্ষেত্রে বলি, আইফোন ১৪-এ রয়েছে এ১৫ বায়োনিক (A15 Bionic) সহ ৫-কোর জিপিইউ (GPU) চিপসেট, যা আইফোন ১৩ প্রো (iPhone 13 Pro) মডেলে বিদ্যমান। তবে স্ট্যান্ডার্ড আইফোন ১৩-এ ৪-কোর জিপিইউ চিপসেট থাকায় একথা নিশ্চিতভাবে বলা যায় যে, নতুন আইফোন ১৪ পূর্বসূরির তুলনায় আরও ভালো পারফর্ম করবে।

এছাড়া, ২০২২ সালের iPhone মডেলে পূর্বের তুলনায় বেশি শক্তিশালী ব্যাটারি দিয়েছে Apple। ক্যামেরার কথা বললে, হ্যান্ডসেটটির ব্যাক প্যানেলে ১২ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ এবং সামনে একটি ১২ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা রয়েছে। এছাড়া, Apple ২০২২ সালের iPhone লাইনআপে ৬ জিবি র‍্যাম দিয়েছে, যেখানে গত বছরের মডেলটিতে ৪ জিবি র‍্যাম বিদ্যমান। সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিষয়টি হল, iPhone 14 ভবিষ্যতে আরও আইওএস (iOS) আপডেট পাবে।

আরও পড়ুন