বেশি দিন অপেক্ষা নয়, ক্রেতাদের মন জিততে ফেব্রুয়ারিতেই লঞ্চ হতে পারে Vivo V30 SE ও Vivo V40 SE 5G

ভিভো (Vivo) একই সাথে একঝাঁক নতুন স্মার্টফোনের ওপর কাজ করছে, যার মধ্যে অন্যতম Vivo V30 সিরিজ এবং Vivo V40 Lite বা Vivo V40 SE 5G। ফোনগুলি ইতিমধ্যেই একাধিক পাবলিক সার্টিফিকেশন প্ল্যাটফর্মে দেখা গেছে। আর এখন Vivo V40 SE 5G এবং Vivo VS30 SE ব্লুটুথ এসএইজি (Bluetooth SIG)-এর ডেটাবেসে উপস্থিত হয়েছে৷ চলুন দেখে নিই, Vivo V সিরিজের আপকামিং ফোনগুলি সম্পর্কে কি কি নতুন তথ্য উঠে এসেছে।

Vivo V40 SE 5G এবং Vivo VS30 SE পেল Bluetooth SIG-এর অনুমোদন

V2337 মডেল নম্বর সহ ভিভো ভি৪০ এসই ৫জি এবং V2349 মডেল কোড সহ ভিভো ভিএস৩০ এসই ৫জি ফোন দুটি ব্লুটুথ স্পেশাল ইন্টারেস্ট গ্রুপে হাজির হয়েছে। লিস্টিং অনুসারে উভয় স্মার্টফোনেই ব্লুটুথ ৫.০ ভার্সনটি সাপোর্ট করবে। এছাড়া, ব্লুটুথ এসআইজি ডেটাবেস থেকে আর কোনও বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে জানা যায়নি। তবে, লঞ্চ হতে বেশি দেরি নেই বলে মনে করা হচ্ছে, কারণ ভিভো ভি৩০ সিরিজের অফিসিয়াল টিজার ইমেজ কয়েকদিন আগে ফাঁস হয়েছিল।

জানিয়ে রাখি, ইতিমধ্যেই ভিভো ভি৩০, ভিভো ভি৩০ প্রো এবং ভিভো ভি৩০ লাইট (মালয়েশিয়ায় ইতিমধ্যেই লঞ্চ হয়েছে) সমন্বিত পুরো সিরিজটি এনসিসি (NCC) সার্টিফিকেশন, ব্লুটুথ স্পেশাল ইন্টারেস্ট গ্রুপের ডেটাবেস এবং গিকবেঞ্চ (Geekbench) বেঞ্চমার্কিং সাইটে উপস্থিত হয়েছে। এদিকে, ভিভো ভি৪০ লাইট ব্লুটুথ এসআইজি-তে উপস্থিত ভিভো ভি৪০ এসই ৫জি-এর মতো একই মডেল নম্বর (V2337) সহ আইএমইআই (IMEI) ডেটাবেসে হাজির হয়েছে।

Vivo V30 SE এবং Vivo 40 SE 5G-এর স্পেসিফিকেশন (সম্ভাব্য)

সূত্র মারফৎ Vivo V30 সিরিজের পোস্টার সামনে এসেছে, যা ডিজাইনের আভাস দিয়েছে৷ পোস্টার অনুযায়ী, ফোনের পিছনে বর্গাকার ক্যামেরা মডিউল এবং সামনের সেলফি ক্যামেরার জন্য পাঞ্চ-হোল কাটআউট দেখা যাবে। Vivo V30 কার্ভড ডিসপ্লে প্যানেল, স্লিম বেজেল এবং চওড়া আপার নচ ও চিন সহ আসবে বলে জানা গেছে।

এছাড়া, Vivo V30 Lite 5G সম্প্রতি মালয়েশিয়ায় লঞ্চ হয়েছে, তাই এখন Vivo V30 এবং Vivo V30 Pro-এর লঞ্চের দিকে চোখ রেখেছেন আগ্রহী ক্রেতারা। আসন্ন Vivo V40 Lite 5G কি অফার করতে পারে, তার আভাস পেতে সদ্য উন্মোচিত V30 Lite 5G-এর বৈশিষ্ট্যগুলি দেখা যেতে পারে। এই মডেলটি ফুলএইচডি+ রেজোলিউশন সহ ৬.৬৭ ইঞ্চির কার্ভড-এজ অ্যামোলেড ই৪ (AMOLED E4) ডিসপ্লে সহ এসেছে, যা ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং ১,১৫০ নিট পিক ব্রাইটনেস অফার করে৷ V30 Lite 5G Qualcomm Snapdragon 695 প্রসেসর দ্বারা চালিত, যা ১২ জিবি র‍্যাম এবং ২৫৬ জিবি স্টোরেজের সাথে যুক্ত রয়েছে।

ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১৩ ভিত্তিক ফানটাচ ওএস ১৩ কাস্টম স্কিনে চলে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, এতে ৪৪ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ শক্তিশালী ৪,৮০০ এমএএইচ ব্যাটারি উপস্থিত রয়েছে। ফটোগ্রাফির জন্য, ৬৪ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি সেন্সর, একটি ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রাওয়াইড লেন্স এবং একটি ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো লেন্স রয়েছে। আর সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য, ফোনের ডিসপ্লের ওপরে পাঞ্চ-হোল কাটআউটে একটি ৫০ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা অবস্থান করছে।

উল্লেখ্য, Vivo V30 ইতিমধ্যেই একাধিক সার্টিফিকেশনে উপস্থিত হয়েছে, যার মধ্যে থাইল্যান্ডের ন্যাশনাল ব্রডকাস্টিং অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন কমিশন (NBTC)-এর সার্টিফিকেশনটি চলতি মাসের শেষে বা ফেব্রুয়ারির শুরুতে লঞ্চের ইঙ্গিত দেয়। ডিভাইসটি ১.৫কে রেজোলিউশন এবং ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সহ ৬.৭৮ ইঞ্চির কার্ভড-এজ অ্যামোলেড (AMOLED) ডিসপ্লে অফার করবে বলে আশা করা হচ্ছে। এতে Qualcomm Snapdragon 7 Gen 3 চিপসেট থাকতে পারে।