চরম দারিদ্রতায় কেটেছিল দিন, কিভাবে আইপিএল ভাগ্য বদলে দিয়েছে জানালেন ধ্রুব জুরেল

২০২২ সালে রাজস্থান রয়্যালস ধ্রব জুরেলকে ২০ লক্ষ টাকার বিনিময়ে দলে সই করিয়েছিল।

ভারতের মতো দেশে বহু ক্রিকেটারকে প্রথম জীবনে দারিদ্রতার সাথে লড়াই করতে হয়। আইপিএল (IPL 2024) এই ক্রিকেটারদের জন্য সমাধানের রাস্তা খুলে দিয়েছে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে জায়গা না পেলেও এই টুর্নামেন্টের মাধ্যমে একজন ক্রিকেটার বিশাল পরিমাণ অর্থ উপার্জন করে থাকেন। এবার ধ্রব জুরেল (Dhruv Jurel) প্রথম আইপিএল থেকে উপার্জিত টাকা কিভাবে খরচ করেছেন সেই বিষয়ে বলতে গিয়ে আবার নিজের মহান মনের পরিচয় দিলেন।

ধ্রুব জুরেল ঘরোয়া ক্রিকেটে দুরন্ত পারফরম্যান্স করে সাম্প্রতিক সময় ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৫ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ভারতীয় দলে অভিষেক করে সকলকে চমকে দিয়েছেন। তিনি সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে অভিষেক করেই ১০৪ বলে ৪৬ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন। তারপর চতুর্থ ম্যাচের প্রথম ইনিংসে গুরুত্বপূর্ণ সময় ধ্রুব ১৪৯ বলে ৯০ রান করে আলোচনায় উঠে আসেন। অন্যদিকে ২০২২ সালে থেকে এই ভারতীয় তরুণ ক্রিকেটার আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে অংশগ্রহণ করে আসছেন।

রাজস্থান তাকে ২০ লক্ষ টাকার বিনিময়ে দলে সই করিয়েছিল। এবার ধ্রুব জুরেল প্রথম আইপিএলের উপার্জনের বিষয়ে বলতে গিয়ে প্রথম জীবনের কঠিন লড়াইয়ের দিনগুলি তুলে আনেন। তিনি নিউস ২৪ স্পোর্টসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, “আমি যখন প্রথম আইপিএল চুক্তি পাই তখন আমার বাবা-মায়ের একটি বিশাল ঋণ ছিল। আমি আমার প্রথম বেতন থেকে সমস্ত ঋণ পরিশোধ করেছি। তারপর আমার মায়ের জন্য গয়নাও কিনেছিলাম।”

বর্তমান সময় দাঁড়িয়ে এই রকম পরিবারের প্রতি দায়িত্ববান ছেলে হয়ে ওঠার বিষয়টি ক্রিকেটপ্রেমীদের মুগ্ধ করেছে। উল্লেখ্য ধ্রব জুরেল এখনও পর্যন্ত আইপিএলে সেইভাবে নজর কাড়তে না পারলেও ১৩ ম্যাচে মোট ১৫২ রান করেছেন। অন্যদিকে ২২ মার্চ থেকে এই বছরে আইপিএল শুরু হবে। এর সঙ্গেই রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে লখনউ সুপার জায়ান্টসের বিপক্ষে ২৪ মার্চ প্রথম ম্যাচে ধ্রুব জুরেল টুর্নামেন্টের যাত্রা শুরু করবেন।