২৫ কোটির স্টার্ক নয়, শেষরক্ষা হর্ষিত রানার, রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে হারের মুখ থেকে জয় ছিনিয়ে নিল KKR

আজ শেষপর্যন্ত ম্যাচে প্রাণ বাঁচিয়ে রাখেন হেনরিখ ক্লাসেন এবং আব্দুল সামাদ। ১৪৫ রানে ৫ উইকেট থেকে দলকে জয়ের দৌড়গোড়ায় পৌঁছে দেন এই জুটি। তবে ম্যাচটি শেষমেষ কলকাতা নাইট রাইডার্সের পক্ষেই যায়।

আজ এক রোমহর্ষক ম্যাচের সাক্ষী থাকলো কলকাতার ইডেন গার্ডেন্স স্টেডিয়াম। আইপিএল ২০২৪ (IPL 2024) এর তৃতীয় ম্যাচেই একেবারে হারের মুহূর্ত থেকে জয় ছিনিয়ে নিলো কলকাতা নাইট রাইডার্স (Kolkata Knight Riders)। সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদও (Sunrisers Hyderabad) একসময় এই ম্যাচে জয়ের জন্য লড়লেও, ম্যাচটি মাত্র ৪ রানে জয়লাভ করলো কলকাতা নাইট রাইডার্স। আর এই ২ পয়েন্টের সাথেই এবারের আইপিএল সফর শুরু কেকেআরের।

আজ কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে টসে জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেন সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। যে সিদ্ধান্তের কারণে প্রথমে ব্যাট করতে হয়ে কেকেআরকে। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে পাওয়ারপ্লেতে খুব দ্রুত উইকেট হারিয়ে খারাপ পরিস্থিতিতে পড়লেও, ফিল সল্টের (Phil Salt) ব্যাক্তিগত ৫৪ রান এবং আন্দ্রে রাসেলের (Andre Russell) ৬৪ রানের ইনিংসের দৌলতে ২০ ওভার শেষে ২০৮ রানে শেষ করে কেকেআর। এছাড়াও রমনদীপ সিংয়ের ৩৫ রান এবং রিঙ্কু সিংয়ের ২৩ রানও বেশ গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে জয় দিয়ে এই মরশুমের যাত্রা শুরু করতে প্রয়োজন ছিল ২০ ওভারে ২০৯ রান। যা তাড়া করতে ওপেনে আসেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল এবং অভিষেক শর্মা। প্রথমে কেকেআরকে একাধিকবার উইকেট নেওয়ার সুযোগ দিলেও, সেই সুযোগ মিস করে তারা। যার কারণে ওপেনে ৬০ রানের পার্টনারশিপ করে এই জুটি৷ শেষমেষ পাওয়ারপ্লের শেষ ওভারে মায়াঙ্ককে ডাগআউটে ফেরান হার্ষিত রানা।

এরপর অভিষেক শর্মার সাথ দিতে ক্রিজে আসেন রাহুল ত্রিপাঠি। তবে অভিষেককেই কিছুক্ষণ পর ৩২ রানে আউট করে প্যাভিলিয়নের রাস্তা দেখান আন্দ্রে রাসেল। পরবর্তী ব্যাটসম্যান এইডেন মার্করামও মাত্র ১৮ রান করে আউট হন বরুণ চক্রবর্তীর বলে। অন্যদিকে রাহুল ত্রিপাঠিও ২০ রান করে আউট হয়ে যান। তারপর ক্রিজে এসে হাল ধরেন হেনরিখ ক্লাসেন (Heinrich Klaasen) এবং আব্দুল সামাদ। দুজনে মিলে ৩৪ রানের মূল্যবান পার্টনারশিপ করেন। তবে সামাদ ১৫ রান করে রাসেলের বল আউট হয়ে যান।

শেষমেষ ম্যাচে প্রাণ বাঁচিয়ে রাখেন হেনরিখ ক্লাসেন এবং আব্দুল সামাদ। ১৪৫ রানে ৫ উইকেট থেকে দলকে জয়ের দৌড়গোড়ায় পৌঁছে দেন এই জুটি। শাহবাজ ১৫ রান করে শেষ ওভারে হার্ষিতের শিকার হন। এরপর হায়দ্রাবাদকে জিততে প্রয়োজন ছিল ৪ বলে ৭ রান। কিন্তু হার্ষিত রানার বলের সামনে নিজের মূল্যবান উইকেটটিও হারান ক্লাসেন।মাত্র ২৯ বলে ৬৩ রান করে ক্রিজ ছাড়েন তিনি। ম্যাচটি শেষমেষ যায় কেকেআরের পক্ষে। তারা মাত্র ৪ রানে জয়লাভ করে এই ম্যাচ।

কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ ম্যাচের স্কোরকার্ড (Kolkata Knight Riders vs Sunrisers Hyderabad Match Scorecard):

কলকাতা নাইট রাইডার্স: ২০৮/৭ (২০ ওভার)

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ: ২০৪/৭ (২০ ওভার)

ম্যাচটি কলকাতা নাইট রাইডার্স ৪ রানে জয়লাভ করেছে।