ক্লাসেনের সামনে ৫ বলে ৭ রান আটকে অসাধ্য সাধন, শেষ ওভারের আগে হর্ষিতকে কি বলেছিলেন শ্রেয়াস?

এবছরের সবচেয়ে দামি প্লেয়ার মিচেল স্টার্ককে এক ওভারে ২৬ রান দিয়েছিলেন ‌ক্লাসেন।

গতকাল ইডেন গার্ডেন্সে এবছর আইপিএলের (IPL 2024) এখনো পর্যন্ত সবচেয়ে রুদ্ধশাদ ম্যাচের সাক্ষী থাকে ক্রিকেটপ্রেমীরা। চার ছক্কার বন্যায় দুই দলই ২০০+ স্কোর করে। তবে কলকাতা নাইট রাইডার্সের (Kolkata Knight Riders) হাত থেকে যখন ম্যাচ একেবারে বেরিয়ে গিয়েছিল সেই মুহূর্তে অবিশ্বাস্যভাবে দলকে জয় এনে দিয়েছিলেন তরুণ পেসার হর্ষিত রানা (Harshit Rana)।

প্রথমে ব্যাট করলে কলকাতার ব্যাটিং অর্ডার নড়বড় করলেও শেষের দিকে রাসেল এবং রমনদীপের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ২০৮ রান করে কেকেআর। হায়দ্রাবাদ এই লক্ষ্য তারা করতে নেমে শেষ পর্যন্ত ম্যাচে জীবিত ছিল। তবে শেষে যখন তিন ওভারে ৬০ রানের প্রয়োজন ছিল তখন অনেকেই ভেবেছিল ম্যাচ কলকাতার পকেটে এসে গেছে। কিন্তু সেখান থেকে ভয়ানক রূপ ধারণ করেন হেনরিখ ক্লাসেন। এমনকি এবছরের সবচেয়ে দামি প্লেয়ার মিচেল স্টার্ককে এক ওভারে ২৬ রান দেন তিনি।

শেষ ওভারে মাত্র ১৩ রান বাকি থাকলে জয়ের আশা সম্পূর্ণ শেষ হয়ে গিয়েছিল কলকাতার জন্য। শেষ ওভারের প্রথম বলে ক্লাসেন আরো একটি ছক্কা মারলে পরাজয় নিশ্চিতভাবে শিকার করেছিল সবাই। তবে তারপরেই এমন কিছু হয় যার জন্য মোটেও প্রস্তুত ছিল না ক্রিকেট দুনিয়া। ৫ বলে ৭ রান আটকাতে গিয়ে ওভারের পঞ্চম বলে ক্লাসেনকে বাইরের রাস্তা দেখান হর্ষিত। শেষ বলে পাঁচ রান প্রয়োজন থাকলে কামিন্সকে রুখে দেন তিনি। এইভাবে মাত্র চার রানে জয় পায় কেকেআর।

তবে ম্যাচ শেষে অধিনায়ক শ্রেয়াস আইয়ার (Shreyas Iyer) জানান- ” শেষ ওভারটি করার আগে প্রচন্ড চাপে ছিলেন হর্ষিত। আমি তাকে বলেছিলাম, বন্ধু এটা তোমার সময়। আমার তোমার উপর ভরসা আছে যে তুমি আমাদেরকে ম্যাচ জেতাতে পারবে। আর তেমনটাই হয়েছে, আমি ওর জন্য অনেক খুশি।”