কোনো ব্যাটার করতে পারেনি ৫ রানও, বিপক্ষকে মাত্র ১৬ রানে আউট করে ইতিহাস গড়লো ইংল্যান্ডের দল

গতকাল জিম্বাবুয়ের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টির ফাইনালে ম্যাশোনাল্যান্ড ঈগলস ব্যাট করতে নেমে অকল্পনীয় ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখে পড়ে।

বিশ্ব জুড়ে ক্রিকেটের ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তার সঙ্গে সঙ্গে একাধিক আঞ্চলিক টুর্নামেন্টের মাধ্যমে তরুণ ক্রিকেটাররা নিজেদের জায়গা করে নিচ্ছেন। এর সঙ্গেই একাধিক অবিশ্বাস্য সব ঘটনা ক্রিকেট মহলে সাম্প্রতিক সময় হইচই ফেলে দিচ্ছে। এবার জিম্বাবুয়ের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টিতে তৃতীয় সর্বনিম্ন মোট রানের সঙ্গে তৃতীয় বৃহত্তম ব্যবধানে জয় লক্ষ্য করা গেল।

গতকাল জিম্বাবুয়ের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টির ফাইনালে ডারহাম (Durham) ম্যাশোনাল্যান্ড ঈগলসের (Mashonaland Eagles) বিপক্ষে মাঠে নামে। ম্যাচে টসে জিতে ডারহাম প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেয়। এরপর তাদের হয়ে ব্যাটিং করতে নেমে অলি রবিনসন (Ollie Robinson) এবং বাস ডি লিড (Bas de Leede) দুরন্ত শুরু করেন। অলির ব্যাট থেকে ২০ বলে ৭ টি চার এবং ৩ টি ছয়ের মাধ্যমে মোট ৪৯ রান আসে। এর সঙ্গেই বাস ডি লিড ২৯ বলে ২ টি চার এবং ৫ টি ছয়ের মাধ্যমে মোট ৫৮ রা‌ন করেন।

শেষে হেডন মাস্টার্ডের (Haydon Mustard) ২২ বলে ৫ টি চার এবং ২ টি ছয়ের মাধ্যমে অপরাজিত ৪৬ রানে ডারহাম ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ২২৯ রান সংগ্রহ করে নেয়। তবে ম্যাচের সবচেয়ে অবিশ্বাস্য ঘটনাগুলি ঘটে দ্বিতীয় ইনিংসে। ম্যাশোনাল্যান্ড ঈগলস ব্যাট করতে নেমে অকল্পনীয় ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখে পড়ে। পেশাদারী ক্রিকেটে এই রকম ম্যাচ খুব একটা বেশি ইতিহাসের সাক্ষ্য রেখে যেতে পারিনি। গতকাল ম্যাচে ঈগলসের একটি ক্রিকেটারের ব্যাট থেকে ৫ রান আসেনি। দুজন ওপেনার সঙ্গে ৫ জন ক্রিকেটার শূন্য রানে মাঠের বাইরে চলে যান।

ফলে দলটি মাত্র ৮.১ ওভারে ১৬ রানে অল আউট হয়ে লজ্জার রেকর্ড তৈরি করে। এটি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটার ইতিহাসে তৃতীয় সর্বনিম্ন রান। এর আগে গত বছর আইল অফ ম্যান দল স্পেনের বিপক্ষে ১০ রানে অল আউট হয়ে গিয়ে এই তালিকায় শীর্ষস্থান দখল করেছে। এর সঙ্গেই গতকাল ম্যাচটি ডারহাম ২১৩ রানে জয়লাভ করে। এটি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে তৃতীয় সর্বোচ্চ ব্যবধানে জয়। গত বছর নেপাল মঙ্গোলিয়াকে টি টোয়েন্টি ক্রিকেটে ২৭৩ রানে পরাজিত করে এই তালিকা শীর্ষস্থান আছে।