iQOO Pad 2 সবচেয়ে শক্তিশালী মিডিয়াটেক প্রসেসর ও পরবর্তী প্রজন্মের ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ আসছে

আপকামিং আইকো প্যাড 2 এবং ভিভো প্যাড 3 প্রো (Vivo Pad 3 Pro) মডেল দুটি অনুরূপ স্পেসিফিকেশন অফার করবে।

গত কয়েকদিন ধরে iQOO একটি নতুন ট্যাবলেট মডেল লঞ্চ করার পরিকল্পনা করছে বলে শোনা যাচ্ছিলো, যার নাম রাখা হবে iQOO Pad 2 (মডেল নম্বর – iPA2475)। আজ আবার জনপ্রিয় টিপস্টার ডিজিটাল চ্যাট স্টেশন (Digital Chat Station) আসন্ন এই ট্যাবের বেশকয়েকটি ফিচার ফাঁস করেছে। জানা গেছে, এই ট্যাবলেট 66 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সমর্থন করবে এবং UFCS ফাস্ট চার্জিং প্রোটোকলের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হবে। একই সাথে টিপস্টার দাবি করেছেন যে, ডিভাইসটি খুব শীঘ্রই আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে।

জানিয়ে রাখি, UFCS হল একটি পরবর্তী প্রজন্মের ফাস্ট চার্জিং প্রোটোকল। যা ‘চায়না একাডেমি অফ ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশনস টেকনোলজি’ (CAICT) এবং Huawei, Vivo ও Xiaomi স্মার্টফোন নির্মাতারা একত্রে হাত মিলিয়ে বিকাশ করেছে।

আনুষ্ঠানিক লঞ্চের আগেই iQOO Pad 2 ট্যাবলেটের গুরুত্বপূর্ণ ফিচার ফাঁস হল

টিপস্টার দ্বারা উইবো প্ল্যাটফর্মে শেয়ার করা পোস্ট অনুযায়ী, আপকামিং আইকো প্যাড 2 এবং ভিভো প্যাড 3 প্রো (Vivo Pad 3 Pro) মডেল দুটি অনুরূপ স্পেসিফিকেশন অফার করবে। জানিয়ে রাখি, ভিভো -এর আসন্ন ট্যাবলেটটি হালফিলে বেঞ্চমার্কিং সাইট গিকবেঞ্চের ডেটাবেসে উপস্থিত হয়েছিল। এই সাইটের লিস্টিং নিশ্চিত করেছে যে, ট্যাবটি মিডিয়াটেকের সবচেয়ে শক্তিশালী চিপ ডাইমেনসিটি 9300 দ্বারা চালিত হবে। টিপস্টার ডিজিটাল চ্যাট স্টেশন, আইকো ট্যাবলেটটিকেও এই একই প্রসেসরের সাথে আসার কথা জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি 9300 ফ্ল্যাগশিপ প্রসেসর গত বছরের নভেম্বরে লঞ্চ হয়। এই চিপসেট TSMC -এর 4 এনএম প্রসেসিং নোড ভিত্তিক এবং 4টি কর্টেক্স-এক্স4 পারফরম্যান্স কোর (1টি সর্বোচ্চ 3.25 গিগাহার্টজ ক্লিক স্পিডে ও বাকি 3টি নূন্যতম 2.85 গিগাহার্টজ ক্লক রেটে রান করে), 2.0 গিগাহার্টজের 4টি কর্টেক্স-এ720 কোর, 12-কোর ইমর্টালিস-জি720 জিপিইউ সাপোর্ট করে। এই প্রসেসরে মিডিয়াটেকের দ্বিতীয় প্রজন্মের হার্ডওয়্যার সক্ষম রে ট্রেসিং ফিচারও সাপোর্ট করে।

এদিকে টিপস্টার আরো বলেছেন যে, ভিভো প্যাড 3 প্রো -এর মতো আইকো প্যাড 2 ট্যাবলেটও – 144 রিফ্রেশ রেটের 13.1-ইঞ্চি 3.1কে+ LCD ডিসপ্লে প্যানেল, 16 জিবি র‍্যাম, 11500 এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি সহ লঞ্চ হবে। অতএব বলা যায় ভিভো প্যাড 3 প্রো মডেলের রিব্র্যান্ডেড সংস্করণ হিসাবে আসতে পারে এই আইকো প্যাড 2।

এছাড়া মনে করা হচ্ছে iQOO Pad 2 মডেলটি পূর্বসূরির থেকেও কয়েকটি ফিচার ধার করতে পারে। এক্ষেত্রে জানিয়ে রাখি গত বছরের মে মাসে আগত পূর্বসূরি প্যাডটি – 144 হার্টজ রিফ্রেশ রেট ও 600 নিট পিক ব্রাইটনেস সমর্থিত 12.1-ইঞ্চির 2.8কে ডিসপ্লে সহ এসেছে। এতে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি 9000+ চিপ আছে, যার সাথে 12 জিবি LPDDR5 র‍্যাম এবং 512 জিবি অনবোর্ড স্টোরেজ সংযুক্ত। এছাড়া ডিভাইসটি স্টাইলাস এবং টাচ কীবোর্ডের সাথেও সামঞ্জস্যপূর্ণ।