স্যামসাং নয়, রেডমি-র বাজার নিচ্ছে এই দুই কোম্পানি : রিপোর্ট

কাউন্টারপয়েন্ট রিসার্চের একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, অনলাইন পরিষেবা ব্যবহার করে স্মার্টফোনের সরবরাহের শেয়ার Q1 2018 এর থেকে Q1 2019 বেড়ে তা 43% এ পৌঁছেছে। কিন্তু পরিসংখ্যান অনুযায়ী অনলাইনে শাওমি-র স্মার্টফোনের সরবরাহ বিগত বছরে ছিল 57%, তবে এই বছর তা বিপুল ভাবে কমে ঠেকছে 43% এ । এই 14% হ্রাসের কারন হিসাবে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, রিয়েলমি ও আসুস এর টপ ফাইভ স্মার্টফোন সেলারের লিস্টে অন্তর্ভুক্ত হওয়া।

বর্তমানে এই দুটি কোম্পানি স্মার্টফোনের বাজারে যথাক্রমে 11% ও 8% শেয়ার বৃদ্ধি করেছে।কাউন্টারপয়েন্ট রিসার্চের তথ্য অনুযায়ী, স্মার্টফোনের মূল্য কমানো ও বিভিন্ন ধরনের স্মার্টফোনের লঞ্চের জন্যই অনলাইনে স্মার্টফোনের সরবরাহ অনেক বেড়ে গেছে এই বছরে। শাওমি-র Redmi 6A, Note 6,note 7 সিরিজ, স্যামসাং এর M সিরিজ, Realme 3, Honor 10 ও Asus Max Pro সিরিজের জন্যই এই পরিসংখ্যান বৃদ্ধি পেয়েছে।

বর্তমানে অফলাইনে স্মার্টফোনের সরবরাহ প্রায় ৪% কমে গেছে। অন্যদিকে অনলাইনে তা প্রতি বছর 17% হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। একথা সত্যি যে শাওমি, রিয়ালমি, ওয়ানপ্লাসের মতো কোম্পানিরা অনলাইনের সাথে সাথে অফলাইনেও তাদের স্মার্টফোনের সরবরাহ বৃদ্ধির পদক্ষেপ নিয়েছে। অন্যদিকে স্যামসাং অফলাইন মার্কেটে তাদের আধিপত্য বজায় রাখার সাথে সাথে M সিরিজ লঞ্চ করেছে কেবল অনলাইনে বিক্রি করার জন্য । একটি পরিসংখ্যান অনুযায়ী ফ্লিপকার্ট,আমাজন,এমআই. কম এই তিনটি ওয়েবসাইটে যথাক্রমে 53%,36%,11% স্মর্টফোন বিক্রি হয়েছে। যা প্রতি বছর বৃদ্ধি পাবে এমনি বিশেষজ্ঞ দের মত।

স্মার্টফোনের বাজার দখলের লড়াইয়ে ক্রেতারাই যে সবথেকে লাভবান হবে তা নিঃসন্দেহে বলা যায়। তাই স্মার্টফোনের এই দীর্ঘ তালিকায় আপনার কোনটি পছন্দের ফোন তা অবশ্যই কমেন্টে জানান।

পড়ুন : ভারতীয় এই যুবককে 34,600 টাকা পুরস্কৃত করল ফেসবুক

সব খবর পড়তে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন

টেক ভিডিও দেখার জন্য আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন – এখানে ক্লিক করুন

সব খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন

Last Updated on