হ্যাকাররা ফোনের ধারেকাছে ঘেঁষবে না, OnePlus বিশ্বের প্রথম ব্র্যান্ড হিসেবে এই কাজ করল

OxygenOS 14 অপারেটিং সিস্টেমে চালিত OnePlus 12-এ আছে ডিভাইস সিকিউরিটি ইঞ্জিন ৩.০, উন্নত সিকিউরিটি সেন্টার, স্ট্রং বক্স চিপ-লেভেল এনক্রিপশন, অটো পিক্সেলেট ২.০ এবং ফটো ম্যানেজমেন্ট পারমিশন সেটিংসের মতো উন্নত সিকিউরিটি ফিচার।

চীনা স্মার্টফোন জায়ান্ট OnePlus সম্প্রতি অ্যাপ ডিফেন্স অ্যালায়েন্স (ADA) এর সাথে হাত মিলিয়েছে। যার ফলে OnePlus ADA-তে যোগদানকারী প্রথম স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হয়ে উঠেছে। কিন্তু এখন প্রশ্ন হচ্ছে কেন এই বিষয়টিকে এতটা গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে? আসলে, এই অংশীদারিত্ব প্রমাণ করে OnePlus তাদের গ্রাহকদের গোপনীয়তা রক্ষা করার জন্য কতটা প্রতিশ্রুতি বদ্ধ।

সম্প্রতি OnePlus তাদের লেটেস্ট ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন OnePlus 12 লঞ্চ করেছে। যাতে সংস্থাটি ব্যবহারকারীর ডেটার নিরাপত্তা বাড়ানোর জন্য একাধিক সিকিউরিটি ফিচার ব্যবহার করেছে। OxygenOS 14 অপারেটিং সিস্টেমে চালিত OnePlus 12-এ আছে ডিভাইস সিকিউরিটি ইঞ্জিন ৩.০, উন্নত সিকিউরিটি সেন্টার, স্ট্রং বক্স চিপ-লেভেল এনক্রিপশন, অটো পিক্সেলেট ২.০ এবং ফটো ম্যানেজমেন্ট পারমিশন সেটিংসের মতো উন্নত সিকিউরিটি ফিচার।

OnePlus এই ডিভাইসে একটি উন্নত শিল্ড প্রোগ্রামও স্থাপন করেছে, যা ডিভাইসটিকে যেকোনো দূষিত অ্যাপ্লিকেশন শনাক্ত করতে সাহায্য করে। সংস্থাটি বলেছে যে, এই অংশীদারিত্বের মাধ্যমে তারা বিশ্বব্যাপী ব্যবহারকারীদের জন্য একটি নিরাপদ অ্যাপ ইকোসিস্টেম তৈরি করবে।

OnePlus-এর প্রেসিডেন্ট কিন্ডার লিউ বলেছেন, অন্যতম জনপ্রিয় ব্র্যান্ড হিসাবে, ব্যবহারকারীর গোপনীয়তা এবং তথ্য নিরাপদে রাখাই হলো OnePlus এর মূল লক্ষ্য। আর ADA-এর সাথে এই অংশীদারিত্ব ব্যবহারকারীদের প্রতি তাদের এই লক্ষ্যকে আরও শক্তিশালী করে তুলবে।

প্রসঙ্গত, বর্তমানে ভারতীয় বাজারে OnePlus 12 5G-এর ১২ জিবি + ২৫৬ জিবির বেস ভ্যারিয়েন্টটির দাম শুরু হচ্ছে ৬৪,৯৯৯ টাকা থেকে। আর ১৬ জিবি + ৫১২ জিবি ভ্যারিয়েন্টের মূল্য ধার্য করা হয়েছে ৬৯,৯৯৯ টাকা। OnePlus-এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট বা Amazon থেকে ক্রেতারা এই ডিভাইসটি কিনতে পারবেন।