সুরক্ষার দিক থেকে লেটার মার্কস পেল Tesla Model S ইলেকট্রিক গাড়ি, ১০০ ফুট নিচে পড়েও বেঁচে ফিরলেন চালক

Published on:

ইলেকট্রিক গাড়ির প্রসঙ্গ এলেই যে সংস্থার নামটি স্বভাবতই মনে চলে আসে তা হল Tesla Inc। সমগ্র বিশ্বে এদের বৈদ্যুতিক গাড়ি বিক্রি সর্বাধিক। এক্ষেত্রে বিশেষ করে Tesla Model 3-র তো কোনো জবাব নেই! এখন প্রশ্ন উঠতে পারে বিক্রি বেশি হলেও সুরক্ষার দিক থেকে কতটা নিরাপদ গাড়িগুলি? যা নিয়ে এর আগে বিশেষ কাউকেই মাথা ঘামাতে দেখা যায় না। তবে সম্প্রতি Tesla Model S গাড়িতে ঘটে যাওয়া এক দুর্ঘটনার কারণে এবার সে বিষয়েও ধারণা পাওয়া গেল।

চলতি সপ্তাহে উত্তর আমেরিকার পুয়ের্তো রিকো-তে এক বড়সড় দুর্ঘটনা ঘটে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, পুয়ের্তো রিকোর এক দুরারোহ পর্বতগাত্র থেকে একটি টেসলা মডেল এস গাড়ি যাত্রী সহ ১০০ ফুট নিচে পড়ে যায়। এরপর সেই গাড়িটির করুণ অবস্থার ছবি ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। দাবি করা হয় গাড়িটির যা অবস্থা তাতে সেটি সম্পূর্ণভাবে নষ্ট হয়ে গেছে, যা পুনরায় সারিয়ে তোলা অসম্ভব। এমনকি দুর্ঘটনার সময় হতভাগ্য মডেল এস-এর মালিক গাড়িটির ভেতরেই ছিলেন। কিন্তু দুর্ঘটনার পর হাতে সামান্য চোট পাওয়া বাদে তিনি অক্ষত অবস্থাতেই বেরিয়ে এসেছেন গাড়িটির থেকে। হ্যাঁ শুনতে আশ্চর্য লাগলেও এটাই সত্যি! যদিও অন্য যাত্রীদের কথা জানা যায়নি।

এক জনৈক গাড়িটির ছবি টুইটারে পোস্ট করে লিখেছেন, “মডেল এস পি৯০ডি (Model S P90D) গাড়িটি পুয়ের্তো রিকোর একটি পর্বতের খাড়া ঢাল থেকে নিচে পড়ে যায়। চালক হাতে সামান্য চোট পেয়ে নিজেই হেঁটে বেরিয়ে আসেন গাড়িটির থেকে। ধন্যবাদ ইলন মাস্ক, আপনার গাড়ির এই অসাধারণ সুরক্ষা ফিচারের জন্য।” দুর্ঘটনার এই ছবি টুইটারে মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায়। এমনকি এই পোস্টটিতে লাইক দিয়েছেন স্বয়ং টেসলা কর্তা ইলন মাস্ক।

তবে কিভাবে গাড়ির চালক দুর্ঘটনার পর অক্ষত অবস্থায় বেরিয়ে এলেন, সে সম্পর্কে সঠিক তথ্য এখনো সামনে আসেনি। এমনকি ভাইরাল হওয়া ছবিটি থেকে গাড়িটির এয়ার ব্যাগের প্রকৃতি ও বিশেষত্ব বোঝার উপায় নেই। একই সাথে দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কেও কোনো তথ্য জানা যায়নি। গাড়িটির ‘অটোপাইলট’-এর খোঁজে রয়েছে টেসলা, যা থেকে দুর্ঘটনার কারণ উদঘাটন করা যেতে পারে।

সঙ্গে থাকুন ➥