ন্যূনতম রিচার্জ করতে হবে ১৫৫ টাকা, বন্ধ হয়ে গেল ৯৯ টাকার প্ল্যান

ন্যূনতম মাসিক রিচার্জ প্ল্যানের দাম ৯৯ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৫৫ টাকা করলো Airtel

Airtel Plan Hike RS 155

বছরের শুরুতেই গ্রাহকদের পকেটে বেশ বড়োসড়ো চাপের সৃষ্টি করলো ভারতের দ্বিতীয় বৃহত্তম টেলিকম কোম্পানি Airtel। সম্প্রতি জানা গিয়েছে যে, সংস্থাটি তাদের সবচেয়ে সস্তা মাসিক রিচার্জ প্ল্যানটি বন্ধ করে দিয়েছে। অর্থাৎ, ন্যূনতম মোবাইল রিচার্জের জন্য ইউজারদের পূর্বের তুলনায় এখন আরও অনেকটা বেশি টাকা খরচ করতে হবে। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে যে, মোট ৯ টি সার্কেলে প্রিপেইড রিচার্জ প্ল্যানের দাম বাড়ানো হয়েছে। এর ফলে ন্যূনতম রিচার্জের জন্য এবার থেকে গ্রাহকদের ৯৯ টাকার পরিবর্তে ১৫৫ টাকা খসাতে হবে। অর্থাৎ সহজে বললে, একটি সিঙ্গেল রিচার্জের জন্য ইউজারদের দিতে হবে বাড়তি ৫৬ টাকা! নিঃসন্দেহে Airtel ব্যবহারকারীদের জন্য এটা যে এক নিদারুণ দুঃসংবাদ, সেকথা বলাই বাহুল্য।

ন্যূনতম মাসিক রিচার্জ প্ল্যানের দাম ৯৯ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৫৫ টাকা করলো Airtel

উল্লেখ্য যে, গত বছরের দ্বিতীয়ার্ধে মার্কেটে জোর গুঞ্জন রটেছিল যে, টেলিকম কোম্পানিগুলি তাদের রিচার্জ প্ল্যানের দাম বাড়াতে চলেছে। সেক্ষেত্রে ২০২২ সালের শেষের দিকে দুটি সার্কেলে প্রিপেইড প্ল্যানের দাম বৃদ্ধি করে সেই দাবিকে নিশ্চিত করেছিল এয়ারটেল। সে সময় শুধুমাত্র হরিয়ানা এবং ওড়িশায় ন্যূনতম প্ল্যানের দাম একলাফে ৫৭ শতাংশ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সংস্থাটি, যার ফলে এই দুই রাজ্যেই এয়ারটেলের সবচেয়ে সস্তা মাসিক রিচার্জ প্ল্যানের দাম ৯৯ টাকা থেকে বেড়ে একধাক্কায় হয়েছিল ১৫৫ টাকা। এরপর খুব স্বাভাবিকভাবে অনেকেই আঁচ করছিলেন যে, আগামী দিনে অন্যান্য রাজ্যেও এই একই ঘটনা ঘটতে পারে। সেক্ষেত্রে এবার সত্যি সত্যিই সেই আশঙ্কাকে বাস্তবায়িত করলো এয়ারটেল। হালফিলে জানা গিয়েছে যে, এখন আরও ৭ টি সার্কেলে কোম্পানির ৯৯ টাকার সবচেয়ে সস্তা রিচার্জ প্ল্যান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এবং এর পরিবর্তে ১৫৫ টাকার প্ল্যান চালু করা হয়েছে।

Airtel-এর ১৫৫ টাকার প্ল্যানের বিশদ বিবরণ

বর্তমানে এয়ারটেলের ১৫৫ টাকার প্রিপেইড প্ল্যানের ভ্যালিডিটি ২৪ দিন। এই প্ল্যানে আনলিমিটেড ভয়েস কলিং সহ মোট ১ জিবি মোবাইল ডেটা পাওয়া যায়। সেইসাথে মোট ৩০০ টি এসএমএস খরচের সুবিধাও উপলব্ধ রয়েছে। উপরন্তু, এক্সট্রা বেনিফিট হিসেবে এই প্ল্যানে মিলবে ফ্রি Hello Tunes এবং Wynk Music-এর ফ্রি সাবস্ক্রিপশনের সুবিধা।

কেন রিচার্জ প্ল্যানের দাম বৃদ্ধি করা Airtel-এর জন্য আবশ্যিক হয়ে দাঁড়িয়েছে?

গত সপ্তাহে Airtel-এর সিইও সুনীল মিত্তল (Sunil Mittal) জানিয়েছিলেন যে, বর্তমানে ইউজার প্রতি গড় আয় বা এআরপিইউ (ARPU) পূর্বের তুলনায় বেশ খানিকটা বাড়ানো একান্ত আবশ্যক, কারণ এআরপিইউ না বাড়ালে লাভের মুখ দেখা তথা কোম্পানির সামগ্রিক ব্যবসায়িক উন্নতি একপ্রকার অসম্ভব বললেই চলে। তাই চলতি বছরের শুরুতেই গোটা দেশে Airtel-এর প্রিপেইড রিচার্জ প্ল্যানের দাম বাড়তে পারে। যদিও এর ফলে ব্যবহারকারীদের পকেটের ওপর খুব বেশি চাপ পড়বে না বলেই জোর গলায় দাবি করেছিলেন মি. মিত্তল; তবে আখেরে প্রিপেইড রিচার্জ প্ল্যানের দাম যে বাড়বে, সেকথা বহু আগেই ঠারেঠোরে জানিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। আর এবার সত্যি সত্যিই দেশের ৯ টি সার্কেলে Airtel-এর ন্যূনতম প্রিপেইড রিচার্জ প্ল্যানের দাম একধাক্কায় বেশ অনেকটাই বৃদ্ধি পেল।