আইটেল ভারতে আনলো পাওয়ার ব্যাংক, ব্লুটুথ স্পিকার সহ ১৪টি প্রোডাক্ট, দাম শুরু ১০০ টাকা থেকে

এন্ট্রি লেভেল স্মার্টফোন এবং ফিচার ফোনের পরে Itel আজ তাদের এক্সেসরিজ সেগমেন্টে বেশ কিছু সংযোজন করেছে। কোম্পানি পাওয়ার ব্যাংক, অডিও ডিভাইস, ফিট ব্যান্ড এবং স্পিকার ক্যাটাগরিতে চৌদ্দটি নতুন প্রোডাক্ট লঞ্চ করেছে। এই প্রোডাক্ট পোর্টফলিওতে ডেটা কেবিল, কার চার্জার, পাওয়ার ব্যাংক, ফিটব্যান্ড, ব্লুটুথ স্পিকার, ইয়ারফোন সমেত আরো অনেক গ্যাজেট রয়েছে। এই গ্যাজেটগুলির দাম ১০০ টাকা থেকে ১৯৯৯ টাকার মধ্যে।

• Itel IPP-62 (১০,০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার সুপার স্লিম পকেট সাইজ পাওয়ার ব্যাংক) – আইটেলের এই নতুন পাওয়ার ব্যাংকে আপনারা আল্ট্রা স্লিম এবং স্টাইলিশ ডিজাইন দেখতে পাবেন। এই পাওয়ার ব্যাংক মাল্টি প্রোটেকশন সেফটি সিস্টেম সমন্বিত এবং এই পাওয়ার ব্যাংক বাইরের ড্যামেজ থেকে সুরক্ষিত থাকবে। এই পাওয়ার ব্যাংকের ক্যাপাসিটি ১০,০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার এবং এটি ২.১ অ্যাম্পিয়ার ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। পাওয়ার ব্যাংকে একটি লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে এবং এটি ডুয়াল আউটপুটের সঙ্গে আসে। এই পাওয়ার ব্যাংক সম্পূর্ণ চার্জ হতে ৫ ঘন্টা সময় লাগে।

• Itel ICC-11 কার চার্জার – আইটেল এর এই নতুন কার চার্জার একসাথে দুটি ডিভাইস চার্জ করতে পারে। এতে ডুয়াল ইউএসবি পোর্ট আপনারা পাবেন যার ফলে প্রত্যেকটি কানেক্টেড ডিভাইস পর্যাপ্ত পাওয়ার গ্রহন করতে পারবে। এই চার্জারে কম্প্যাক্ট ডিজাইন এবং মাল্টি লেয়ার প্রোটেকশন দেওয়া হয়েছে এবং বাজারে উপলব্ধ জনপ্রিয় গাড়িগুলির সঙ্গে এই চার্জার ব্যবহার করতে পারবেন। এই কার চার্জার অপটিমাম চার্জিং প্রোটোকল ডিটেক্ট করতে পারে এবং এটি আপনার গাড়িকে ৩.৪ অ্যাম্পিয়ারে চার্জ করতে পারবে।

• Itel IFB-11 – আইটেলের এই নতুন ফিট ব্যান্ড এইচডি কালার স্ক্রিনের সাথে আছে এবং এতে ২০ দিনের ব্যাটারি ব্যাকআপ আপনারা পেয়ে যাবেন।। এটি আপনার ক্যালোরি কাউন্ট, স্টেপ কাউন্ট স্লিপ কাউন্ট করতে সক্ষম। এই ফিটনেস ট্র্যাকার আপনারা ওয়ার্কআউট, সুইমিং এবং জগিংয়ের সময় ব্যবহার করতে পারেন। এতে স্প্ল্যাশ রেসিস্টেন্ট রয়েছে। এই ফিটনেস ব্যান্ড আপনারা ফোনকল, মেসেজ এবং হোয়াটসঅ্যাপ নোটিফিকেশন অ্যালার্ট পেতেও ব্যবহার করতে পারেন।

• স্পিকার – স্পিকার সেগমেন্টে আইটেল নিয়ে এসেছে তাদের নতুন স্পিকার IBS-10 । এই ব্লুটুথ স্পিকার অত্যন্ত কম্প্যাক্ট এবং পোর্টেবল। এই স্পিকারে ডুয়াল স্পিকার রয়েছে, এবং প্রত্যেক স্পিকার ৫ ওয়াট অডিও আউটপুট প্রদান করে। অর্থাৎ স্পিকারের সর্বমোট অডিও আউটপুট ১০ ওয়াটের। এই স্পিকারে স্টিরিও স্ট্যাবিলাইজেশন এবং ১,৫০০ মিলি এম্পিয়ারের ব্যাটারী রয়েছে। এই ব্লুটুথ স্পিকার ব্লুটুথ ৫.০ কানেক্টিভিটি সাপোর্ট করে এবং এর মিউজিক প্লে টাইম ৬ ঘন্টার। এই ব্লুটুথ স্পিকার অক্স কেবিল কানেক্টিভিটি, টি কার্ড সাপোর্ট, এবং ওয়্যারলেস এফএম এর মত ফিচার আপনাকে দিতে পারে।

• অডিও – অডিও সেগমেন্টে আইটেল নিয়ে এসেছে ব্লুটুথ হেডফোন BT necklace ( IEB-62 )। এই ব্লুটুথ নেকলেস ইয়ারফোনে সোয়েট প্রুফ টেকনোলজি দেওয়া হয়েছে। এই ইয়ারফোনের ওজন মাত্র ২০ গ্রাম এবং কোম্পানি তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে এই ইয়ারফোনে উন্নত মানের ব্লুটুথ চিপ, ইনলাইন রিমোট এবং মাইক্রোফোন দেওয়া হয়েছে। এই নেকলেস ইয়ারফোন আপনাকে ১২০ ঘন্টার স্ট্যান্ডবাই সময় দিতে পারে। এছাড়া এই ইয়ারফোনের টকটাইম ৬ ঘন্টা এবং মিউজিক প্লেব্যাক সময় ৫ ঘন্টা।

• ওয়ারেন্টি- আইটেল নিজের অ্যাক্সেসরি পোর্টফোলিওতে ১২ মাসের ওয়ারেন্টি দেয়। এই ১২ মাসের ওয়ারেন্টি পাওয়ার ব্যাংক, চার্জার, ফিটব্যান্ড এবং ব্লুটুথ হেডসেট ও স্পিকারের ক্ষেত্রে লাগু হয়। অন্যদিকে পোর্টফলিওতে থাকা অন্যান্য অ্যাক্সেসরিজ যেমন- ব্যাটারি, ইয়ারফোন, ইউএসবি কেবিলের উপরে ৬ মাসের ওয়ারেন্টি দেওয়া হবে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।