একের পর এক আত্মহত্যা, এই দেশে বন্ধ হল PUBG মোবাইল গেম

PUBG মোবাইল গেমের জনপ্রিয়তার কথা জানেনা এমন স্মার্টফোন ইউজার খুব কম। কম বয়সী ছেলে মেয়েরা এই ব্যাটেল গেমে মজে আছে। তবে এই বহুল চর্চিত অনলাইন গেমটিকে পাকিস্তানে সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হল। কিন্তু হঠাৎ কেনো এই জনপ্রিয় গেমটি প্রতিবেশী দেশে বন্ধ হয়ে গেলো বা ভারতের এই গেম কে বন্ধ করা হবে কিনা, আসুন সে সম্পর্কে জেনে নিই।

আসলে গত ২৪শে জুন PUBG গেমের একটি মিশন কমপ্লিট করতে না পারায়, একটি ১৬ বছর বয়সী পাকিস্তানি ছেলে আত্মহত্যা করেছে। যদিও এর পেছনে অন্য কোনো কারণ ছিল কিনা তা নিশ্চিত করা যায়নি। এর আগেও এই দেশে গেমের জন্য আত্মহত্যা বাড়ছে এমন অভিযোগ দায়ের করা হয়। সম্প্রতি PUBG মামলায় লাহোর হাইকোর্ট পাকিস্তান টেলিকমিউনিকেশন অথরিটি (PTA)-কে তলব করে। PTA এই মামলার বিষয়টি গ্রহণ করে সাময়িকভাবে PUBG বন্ধ করার জন্য প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

সূত্র থেকে জানা গেছে, PUBG গেম থেকে বাচ্চাদের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের উপর গুরুতর নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে, বহুদিন ধরেই এমন অভিযোগ উঠছিল পাকিস্তানে। এছাড়াও, মানুষ PUBG-তে আসক্ত হচ্ছিল বড় আকারে, যা স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকারক। এমন পরিস্থিতিতেই পাকিস্তান মন্ত্রক এই পদক্ষেপ নিয়েছে। PTA একটি টুইটার পোস্টে জানিয়েছে PUBG খেলাটি সময়ের অপচয় ছাড়া কিছুই না।

দিন কয়েক আগে ভারত সরকার দ্বারা ৫৯টি চীনা অ্যাপ্লিকেশন বন্ধ করার সময়, গুজব উঠেছিলো ভারতেও PUBG গেম বন্ধ হতে পারে। তবে জানিয়ে রাখি PUBG-এর উৎস চীন নয়, এটি দক্ষিণ কোরিয়ান অনলাইন ভিডিও গেম। এদিকে চীনের সাথে সম্পর্ক না থাকলেও ভারতেও গেমটির বিরুদ্ধে কয়েকটি রিপোর্ট জমা পড়েছে। জর্ডন, ইরাক, নেপাল এবং ভারতের গুজরাটে এই অনলাইন গেমকে ব্যান করা হয়েছিল।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।