Xiaomi 11T Pro নিয়ে জল্পনা শেষ, 19 জানুয়ারি 120W ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ আসছে এই Hyperphone

শাওমি ১১টি সিরিজটি গতবছর সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময় উন্মোচিত হয়েছিল গ্লোবাল মার্কেটে। এই সিরিজের অধীনে বেস মডেল শাওমি ১১টি- এর সঙ্গে আত্মপ্রকাশ করে শাওমি ১১টি প্রো

xiaomi-11t-pro-india-launch-confirmed-january-19-specifications-120w-fast-charging-support

অবশেষে জল্পনার অবসান হল! ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তির সাথে ভারতের বাজারে এমাসেই পা রাখতে চলেছে শাওমির নতুন “Hyperphone” ওরফে Xiaomi 11T Pro। উল্লেখ্য, গত ৬ জানুয়ারি ভারতের বাজারে পা রেখেছিল Xiaomi 11i স্মার্টফোন সিরিজটি। এই সিরিজের লঞ্চ ইভেন্টের শেষে চীনা সংস্থাটি তাদের আরও একটি নতুন ফোনের টিজার প্রকাশ্যে আনে। টিজারে ফোনটিকে “Hyperphone” বলে উল্লেখ করা হয়। সেই টিজার থেকে অবশ্য এই ফোনের নাম জানা যায়নি। তবে অনুমান করা হয়, এটি গত সেপ্টেম্বর মাসে ইউরোপের মার্কেটে লঞ্চ হওয়া Xiaomi 11T Pro হতে পারে। এই জল্পনাকেই উসকে দিয়ে শাওমি এবার এই ফোনের আরও একটি টিজার সামনে আনল। এই টিজার থেকে স্পষ্ট শাওমির এই “Hyperphone” আদতে Xiaomi 11T Pro-ই, ভারতে যার ওপর থেকে পর্দা সরানো হবে আগামী ১৯ জানুয়ারি। জানা গেছে এই ফোনে থাকবে ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট।

Xiaomi 11T Pro এমাসেই ভারতে লঞ্চ হচ্ছে

শাওমি ১১টি সিরিজটি গতবছর সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময় উন্মোচিত হয়েছিল গ্লোবাল মার্কেটে। এই সিরিজের অধীনে বেস মডেল শাওমি ১১টি- এর সঙ্গে আত্মপ্রকাশ করে শাওমি ১১টি প্রো। চীনের বাইরের মার্কেটে এই ফোনটিই ছিল ১২০ ওয়াট চার্জিং সাপোর্ট যুক্ত প্রথম স্মার্টফোন। আত্মপ্রকাশের প্রায় চার মাস পরে, ফোনটি অবশেষে ভারতের বাজারে পা রাখতে চলেছে। আগামী ১৯ জানুয়ারি এদেশে লঞ্চ হবে শাওমি ১১টি প্রো।

যদিও, Xiaomi 11T Pro ফোনটি সম্পর্কে সকল তথ্যই সেপ্টেম্বর মাসে গ্লোবাল মার্কেটের লঞ্চের সময় প্রকাশ্যে এসেছে, তবুও শাওমি ইন্ডিয়ার ওয়েবসাইটে এই ফোনের জন্য একটি পেজ তৈরি করা হয়েছে, যেখানে এই ফোনের ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের প্রধান ফিচারগুলি প্রকাশ করবে সংস্থা।

শাওমি ১১টি প্রো -এর স্পেসিফিকেশন (Xiaomi 11T Pro Specifications)

Xiaomi 11T Pro ফোনের গ্লোবাল ভ্যারিয়েন্টে একাধিক আকর্ষণীয় ফিচার রয়েছে। এই ফোনে ৬.৬ ইঞ্চির ফুল এইচডি+ ১০ বিট AMOLED ডিসপ্লে বর্তমান। এই ডিসপ্লের রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ। এছাড়াও Xiaomi 11T Pro ফোনের ডিসপ্লেতে রয়েছে ডলবি ভিশন সাপোর্ট এবং সুরক্ষার জন্য গরিলা গ্লাস ভিক্টাস। পারফরম্যান্সের জন্য Xiaomi 11T Pro ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর এবং এই ফোনে রয়েছে এলপিডিডিআর৫ র‍্যাম ও ইউএফএস ৩.১ স্টোরেজ।

ফটোগ্রাফির জন্য Xiaomi 11T Pro ফোনের ব্যাকপ্যানেলে রয়েছে ১০৮ মেগাপিক্সেল (প্রাইমারি) + ৮ মেগাপিক্সেল (আল্ট্রাওয়াইড) + ৫ মেগাপিক্সেল (টেলিম্যাক্রো) সেন্সর যুক্ত ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এরসাথে ফোনের সামনে ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা উপস্থিত।

পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য Xiaomi 11T Pro ফোনে দেওয়া হয়েছে ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। এছাড়া এই স্মার্টফোনটি অফার করে ডলবি অ্যাটমস সাপোর্ট সহ হারমন কার্ডন টিউনড ডুয়েল স্টেরিও স্পিকার এবং এটি রান করে অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমআইইউআই ১২.৫ (MIUI 12.5) কাস্টম স্কিনে।

Ananya graduated with a degree in Journalism and Mass Communication And she loves to read and write, enjoys music and is very interested in technology