Samsung Galaxy Z Fold 3 প্রথম আন্ডার ডিসপ্লে সেলফি ক্যামেরার ফোল্ডিং ফোন হিসেবে লঞ্চ হল, রয়েছে S Pen সাপোর্ট

Samsung Galaxy Z Fold 3 under display camera S Pen support IP build launched price specifications availability
Samsung Galaxy Z Fold 3 লঞ্চ হল

জল্পনা সত্যি করে আজ Galaxy Unpacked ইভেন্টে লঞ্চ হল Samsung Galaxy Z Fold 3, Samsung Galaxy Z Flip 3। এরমধ্যে Galaxy Z Fold 3 গত বছরে লঞ্চ হওয়া Galaxy Z Fold 2 এর উত্তরসূরী হিসেবে এসেছে। নতুন এই ফোল্ডেবল ফোনের মূল আকর্ষণ S Pen সাপোর্ট ও আন্ডার ডিসপ্লে ক্যামেরা। এছাড়া এই ফোনে আর্মর অ্যালুমিনিয়াম উপাদান দিয়ে তৈরি IPX8 জল প্রতিরোধী বিল্ড, কর্নিং গরিলা গ্লাস ভিক্টাস প্রোটেকশন রয়েছে। আবার Samsung Galaxy Z Fold 3 ফোনে পাওয়া যাবে ডায়নামিক AMOLED ডিসপ্লে, অক্টা-কোর প্রসেসর, ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা ও ৪,৪০০ এমএএইচ ব্যাটারি। আসুন Samsung Galaxy Z Fold 3 এর দাম ও স্পেসিফিকেশন জেনে নেওয়া যাক।

Samsung Galaxy Z Fold 3 এর দাম ও লভ্যতা

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৩ এর দাম দাম শুরু হয়েছে ১,৭৯৯ ডলার (প্রায় ১,৩৩,৬০০ টাকা) থেকে। ফোল্ডেবল ফোনটি ১২ জিবি র‌্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ এবং ১২ জিবি র‌্যাম + ৫১২ জিবি স্টোরেজ সহ পাওয়া যাবে। ফ্যান্টম ব্ল্যাক, ফ্যান্টম গ্রিন ও ফ্যান্টম সিলভার কালারে স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৩ বেছে নেওয়া যাবে।

আজ থেকেই ফোনটির প্রি-অর্ডার শুরু হয়েছে। আগামী ২৭ আগস্ট থেকে আমেরিকা, ইউরোপ ও দক্ষিণ কোরিয়ায় ফোনটির সেল শুরু হবে। যদিও ভারতে Samsung Galaxy Z Fold 3‌ ফোনটির দাম কত রাখা হবে বা কবে থেকে পাওয়া যাবে তা এখনো জানা যায়নি।

প্রসঙ্গত গত বছর Samsung Galaxy Z Fold 2 আমেরিকায় ১,৯৯৯ ডলার ও ভারতে ১,৪৯,৯৯৯ টাকায় লঞ্চ হয়েছিল। সেক্ষেত্রে ভারতে Samsung Galaxy Z Fold 3‌ তার পূর্বসূরীর থেকে অনেক কমে আসবে বলে আমাদের অনুমান।

Samsung Galaxy Z Fold 3‌ এর স্পেসিফিকেশন ও ফিচার

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৩ অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড ওয়ান ইউ কাস্টম ওস-এ চলবে। ফোল্ডেবল ফোন হওয়ায় এতে দুটি ডিসপ্লে রয়েছে। সেক্ষেত্রে এর প্রাইমারি QXGA+ (২২০৮x১৭৬৮ পিক্সেল) রেজোলিউশনের ডিসপ্লের আয়তন ৭.৬ ইঞ্চি। এতে ১২০ হার্টজ ভ্যারিয়েবল রিফ্রেশ রেট, ২২.৫:১৮ এসপেক্ট রেশিও ও ৩৭৪পিপিআই পিক্সেল ডেন্সিটি সহ Dynamic AMOLED 2X ডিসপ্লে প্যানেল ব্যবহার করা হয়েছে। প্রাইমারি ডিসপ্লের উপরে রয়েছে কর্নিং গরিলা গ্লাস ভিক্টাস।

আবার স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৩-এর সেকন্ডারি ডিসপ্লে ৬.২৮ ইঞ্চির। এইচডি প্লাস (৮৩২ x ২,২৬৮ পিক্সেল) রেজোলিউশনের এই ডিসপ্লে এসেছে ১২০ হার্টজ ভ্যারিয়েবল রিফ্রেশ রেট, ২৪.৫:৯ এসপেক্ট রেশিও ও ৩৮৭পিপিআই পিক্সেল ডেন্সিটি সহ। এটিও Dynamic AMOLED 2X ডিসপ্লে প্যানেল।

Samsung Galaxy Z Fold 3 under display camera S Pen support

এই একই ডিসপ্লে সাইজ আমরা স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ২ ফোনে দেখেছিলাম, যদিও উত্তরসূরিতে রিফ্রেশ রেট ও রেজোলিউশন বুস্ট করা হয়েছে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৩ ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ৫এনএম অক্টা-কোর প্রসেসর সহ, যার ম্যাক্সিমাম ক্লক স্পিড ২.৮৪ গিগাহার্টজ। যদিও এটি কী প্রসেসর তা কোম্পানি জানায়নি। তবে অনুমান করা হচ্ছে এতে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ রয়েছে।

ফটোগ্রাফির জন্য Samsung Galaxy Z Fold 3 ফোল্ডেবল ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান, যা উল্লম্ব ভাবে অর্থাৎ লম্বালম্বি বা ‘ভার্টিক্যালি’ অবস্থিত। এই একই ক্যামেরা ডিজাইন Samsung Galaxy Fold 2 ফোনেও ছিল। যাইহোক নতুন এই ফোনটির ক্যামেরা মডিউলে রয়েছে এফ/১.৮ অ্যাপারচার এবং অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন (OIS) সহ ১২ মেগাপিক্সেল ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স, ১২ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড শুটার, এবং ১২ মেগাপিক্সেল টেলিফটো সেন্সর। তৃতীয় ক্যামেরাটি ডুয়েল OIS সাপোর্ট, ২এক্স অপটিক্যাল জুম ও এইচডিআর১০ প্লাস রেকর্ডিং অফার করবে।

সেলফি ও ভিডিও চ্যাটের জন্য Samsung Galaxy Z Fold 3 ফোনের কভার স্ক্রিনে এফ/২.২ অ্যাপারচার ও ৮০ ডিগ্রি ফিল্ড অফ ভিউ সহ ১০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা পাওয়া যাবে। আবার ফোনের ফোল্ডি স্ক্রিনের ভিতরে রয়েছে ৪ মেগাপিক্সেল আন্ডার ডিসপ্লে ক্যামেরা। এই প্রথম কোনো ফোল্ডেবল ফোনে আন্ডার ডিসপ্লে সেলফি ক্যামেরা দেখা যাবে।

এই ফোনের ক্যামেরায় নাইট মোড, নাইট হাইপারল্যাপস মোড, ডিরেক্টর’স ভিউ মোড, এবং পোট্রেট মোডের মতো ফটোগ্রাফি ফিচার সাপোর্ট করবে। এছাড়া ফোনে 8K রেজোলিউশনের ভিডিও শ্যুট করার সুবিধা থাকছে।

Samsung Galaxy Z Fold 3 ফোনের আরেকটি মূল আকর্ষণ S Pen সাপোর্ট। এই প্রথম Note সিরিজের বাইরে কোনো ফোনে S Pen সাপোর্ট দিয়েছে। Wacom এর সাথে হাত মিলিয়ে Samsung আজ দুটি S Pen এনেছে, যেগুলি হল – S Pen Fold Edition এবং S Pen Pro। এর মধ্যে প্রথমটি ব্লুটুথ সাপোর্ট ছাড়া এসেছে, এটি Galaxy Z Fold 3 ফোনে সাপোর্ট করবে। যেখানে দ্বিতীয়টিকে সমস্ত S Pen সাপোর্টযুক্ত ফোনের জন্য আনা হয়েছে, এতে ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি রয়েছে।

Samsung Galaxy Z Fold 3 পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ৪,৪০০ এমএএইচ ডুয়েল সেল ব্যাটারি পেয়েছে। এতে ওয়্যারলেস চার্জিং, ওয়ারড চার্জিং ও রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং সাপোর্ট করবে। আবার সাধারণ ২৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জার দিয়েও ফোনটি চার্জ করা যাবে। কানেক্টিভিটি অপশনের মধ্যে এই ফোনে রয়েছে 5G, 4G LTE, ওয়াই-ফাই ৬, ব্লুটুথ ৫.২, জিপিএস, এনএফসি, আল্ট্রা ওয়াইডব্যান্ড, ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট। ফোনটির ওজন ২৭১ গ্রাম। উল্লেখ্য Samsung Galaxy Z Fold 2 এর ওজন ছিল ২৮২ গ্রাম।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

Passionate techie. Professional tech writer. A true cricket fan. Julai is a senior editor For Techgup and has frequently written about smartphones, apps, telecom News. You can follow him on Twitter @Julai_Mondal.